ফাইল ছবি

স্টাফ রিপোর্টার,বারাকপুর: নিজের ৩ বছরের শিশু কন্যাকে খুন করে আত্মঘাতী হলেন মা। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার জেলার বারাকপুর সদর বাজার এলাকায়।

মৃত মহিলার নাম পারভিন খান ও মৃত শিশুটির নাম ইভানা খান। বুধবার সন্ধ্যায় বারাকপুর সদর বাজারে তাঁদের নিজেদের শোয়ার ঘর থেকে মা ও মেয়ের মৃতদেহ উদ্ধার করে বারাকপুর থানার পুলিশ।

পারিবারিক অশান্তির জেরে মা পারভিন খান তার ছোট্ট শিশুকে শ্বাসরোধ করে খুন করে আত্মঘাতী হয়েছে বলে অনুমান প্রতিবেশীদের। বুধবার সন্ধ্যায় স্থানীয় বাসিন্দারা পুলিশকে খবর দিলে বারাকপুর থানার পুলিশ এসে দরজা ভেঙ্গে মা ও মেয়ের মৃতদেহ উদ্ধার করে।

পুলিশ ও স্থানীয় বাসিন্দাদের ধারনা পারভিন খান নিজে প্রথমে তাঁর ছোট শিশুটিকে খুন করে তারপর নিজে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হয়েছে। পারিবারিক অশান্তির জেরে এই ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে সন্দেহ করছে পুলিশ। এদিন পুলিশ দরজা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে দেখে বিছানায় মৃত অবস্থায় পরে রয়েছে শিশুটি আর মা পারভিনের দেহ ঝুলন্ত অবস্থায় রয়েছে।

বারাকপুর থানার পুলিশ সূত্রের খবর যে সময়, এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে সেই সময় মৃত পারভিন খানের স্বামী ইমরান খান বাড়িতে ছিলেন না। লকডাউনের পর থেকেই পারভিন খানের স্বামী কাজ হারিয়ে বাড়িতে বসে ছিলেন। কিন্তু প্রতিবেশীদের দাবি কোনও দিন স্বামী স্ত্রীর মধ্যে কোনও ঝামেলা বা অশান্তি হতে কোনও দিনই তাঁরা দেখেননি। কেন এই ঘটনা ঘটল তা নিয়ে যথেষ্টই হতবাক ও বিস্মিত প্রতিবেশীরা। বারাকপুর থানার পুলিশ গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। এই ঘটনার জেরে মৃতা পারভিন খানের স্বামী ইমরান খানকে জেরা করছে বারাকপুর থানার পুলিশ।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ