ঢাকা: বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের থাবা ক্রমশ জাঁকিয়ে বসছে৷ মারণ এই ভাইরাসের হাত থেকে রেহায় পেলেন না জাতীয় দলের ক্রিকেটাররাও৷ দু’ সপ্তাহ আগেই করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক মাশারাফি মোর্তাজা৷ কিন্তু দ্বিতীয়বার রিপোর্টও তাঁর রিপোর্ট পিজিটিভ এসেছে বলে জানা গিয়েছে৷

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের ডাক্তার দেবাশিস চৌধুরী শনিবার জানিয়েছেন, ‘আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই৷ ৮ জুলাই মাশারাফির আবার টেস্ট করা হবে৷ আশাকরি তখন ওর রিপোর্ট নেগেটিভ আসবে৷ সাধারণত বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ১৪ দিনের ব্যবধানে দ্বিতীয়বার টেস্ট করা হলে তাতে নেগেটিভ আসে৷ তবে বাধ্যতামূলক নয়, কারোর কারোর ক্ষেত্রে একটু বেশি সময় লাগতে পারে৷

২০ জুন নিজের ফেসবুক পোস্টে তাঁর করোনা আক্রান্তের কথা জানিয়েছিলেন বাংলাদেশের প্রাক্তন ক্রিকেট অধিনায়ক৷ তারপর থেকে ঢাকার বাড়িতে আইসোলেশনে রয়েছেন মোর্তাজা৷ বাংলাদেশের প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে করোনা আক্রান্ত হলেন মাশরাফি৷

দেশের হয়ে ৩৬টি টেস্ট ২২০টি ওয়ান ডে এবং ৫৪টি টি-২০ ম্যাচ খেলা ৩৬ বছরের ডানহাতি পেসার জুনের তৃতীয় সপ্তাহে অসুস্থবোধ করছিলেন৷ করোনার উপসর্গ থাকায় দ্রুত তাঁর লালারস পরীক্ষা করা হয়। ২০ জুন দুপুরে সেই টেস্ট রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তখন থেকেই বাড়িতে আইসোলেশনে রয়েছেন প্রাক্তন জাতীয় অধিনায়ক৷

বাংলাদেশে করোনা সংক্রমণের প্রথম দিন থেকে নড়াইল ২ নির্বাচনী এলাকায় ত্রাণ-সহ বিভিন্ন কার্যক্রমে ছুটে বেরিয়েছেন৷ কিন্তু শেষ পর্যন্ত নিজেই মারণ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হন। গত ১৫ জুন মাশরাফির শাশুড়ি ও শ্যালিকার মেয়ের করোনা পজিটিভ হওয়ার কথা জানা গিয়েছিল৷

মাশরাফির পাশাপাশি জাতীয় দলের প্রাক্তন ওপেনার তথা বর্তমান বাংলাদেশ ওয়ান ডে দলের অধিনায়ক তামিম ইকবালের দাদা নাফিজ ইকবালও করোনা আক্রান্ত হয়েছিল বলে জানা গিয়েছিল৷ ২০০৩ সালে এই ডানহাতি ওপেনারের জাতীয় দলের অভিষেক হয়েছিল নাফিজের৷ ২০০৬ পর্যন্ত দেশের প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন তিনি৷ দেশের হয়ে ১১টি টেস্ট এবং ১৬টি ওয়ান ডে খেলেছেন নাফিজ৷

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ