জয়পুর: শেষকৃত্য সম্পন্ন হল শহিদ বিএসএফ জওয়ান গুরনাম সিং। রাজস্থানের ভালেসরে তাঁর নিজের গ্রামে পূর্ণ সামরিক মর্যাদায় শেষকৃত্য হয় তাঁর। শেষকৃত্যে গ্রামের গর্ব, গুরনামের শেষযাত্রায় সামিল হয়েছিলেন কয়েক হাজার মানুষ গ্রামবাসী। উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের বিভিন্ন মন্ত্রী, বিএসএফ আধিকারিক, জেলা প্রশাসনের আধিকারিক এবং রাজনৈতিক নেতারাও। চোখের জলে তাঁদের গ্রামের গর্বকে বিদায় জানান তাঁরা।

শেষ বিদায়ে গুরনামের বাবা কুলবীর সিং জানান, গুরনামের মতো সাহসী ছেলে পেয়ে আমরা গর্বিত। শুধু পরিবার পরিজনই নয়, চোখের জলে গুরনামকে শেষ বিদায় জানান গ্রামবাসী, তাঁর সহকর্মীরাও। মুখে শ্লোগান, “গুরনাম সিংহ অমর রহে”, জব তক সূরয চাঁদ রহেগা, গুরনাম সিংহ তেরা নাম রহেগা”। তাঁদের একটাই দাবি, কঠোর থেকে কঠোরতর ব্যবস্থা নেওয়া হোক পাকিস্তানের বিরুদ্ধে। স্থানীয় এক গ্রামবাসী বলেন, আমরা শান্তির পক্ষে। কিন্তু এই মুহূর্তে পাকিস্তান ভারতীয়দের মেরে শান্তি বিঘ্নিত করছে। আমরা চাই চিরতরে তা বন্ধ হোক। পাকিস্তানেরও একটা শিক্ষার প্রয়োজন আছে। যাতে আর কোনও মাকে সন্তান হারাতে না হয়।

জম্মু ও কাশ্মীরের কাঠুয়া জেলায় আন্তর্জাতিক সীমান্তে পাক রেঞ্জার্সের ছোঁড়া গুলি বুক ফুঁড়ে যায় গুরনামের। আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে শেষ রক্ষা হয়নি। রবিবার সকালে শহিদ হন গুরনাম সিং। ইতিমধ্যে তাঁকে বিএসএফের তরফে সর্বোচ্চ সম্মান দেওয়ার আবেদন করা হয়েছে।