কী বলি আর কী বলি না! সকালে ঘুম থেকে ওঠবার পর থেকেই আমরা নিজের মনে কতবার কত কী বলি, এটা করব, সেটা করব না, এটা বলব, ওখানে যাব না-র মতো আরও কত কিছু৷ কিন্তু জানেন কি এমন কিছু কথা রয়েছে, যা কখনও নিজেকে বলতে নেই৷ বললে নিজের উপর আত্মবিশ্বাস চলে তো যাবেই, উল্টে বাড়বে নেগেটিভ এনার্জিও৷ আর সারাদিন যখন এই ধরনের নেতিবাচক ভাবনাচিন্তাগুলো মনের মধ্যে ক্রমাগত ঘুরপাক খায়, তখন একসময় আপনি সেগুলো ধ্রুব সত্য বলে বিশ্বাস করতে শুরু করবেন৷

তাই সারাদিনে যখনই নিজেকে নিয়ে বিশ্লেষণ করবেন, তখন নিজেকে কখনও ছোট করে দেখবেন না৷ বন্ধ করুন ঘণ্টার পর ঘণ্টা ধরে আত্মসমালোচনা৷ আর নিজেকে কখনও বলবেন না-

১.আমি খুব একটা ভালো নই- কখনওই এটা ভাববেন না৷ ভালো বা মন্দ বড় কথা নয়৷ আপনার জীবনটা নিজের মতো করে সুন্দরভাবে কাটান৷ আপনি যে বেঁচে রয়েছেন, এই জীবনটা কাটাচ্ছেন, তার জন্য ঈশ্বরকে ধন্যবাদ দিন৷ যদি দিনের মধ্যে বার দশেক নিজেকে বলেন আমি ভালো নই, তাহলে মনে মনে অন্তত কুড়ি বার নিজেকে এই বলে সান্ত্বনা দিন আমি সবার কাছেই মূল্যবান৷ আমার প্রয়োজন এখনও ফুরিয়ে যায়নি৷

২. অন্যরা আমার থেকে অনেক বেশি এগিয়ে কারণ এরা বুদ্ধিমান- শুরুতেই আপনাকে এই পিছিয়ে পড়ার মনোভাব ছাড়তে হবে৷ অন্যদের প্রতিভা রয়েছে বলেই তো আপনার নিজের প্রতিভা কম হয়ে যায় না৷ হয় কি? নিজেই নিজেকে প্রশ্নটা করুন৷ আর এসব বিপরীতধর্মী ভাবনাচিন্তা ছেড়ে নিজের মধ্যে যেসব অভিনবত্ব রয়েছে, সেগুলিকে খুঁজে বের করার চেষ্টা করুন৷ যে কাজে আপনি দক্ষ চেষ্টা করুন দিনের বেশ খানিকটা সময় তাতে ব্যয় করা৷ আর নিজেকে বলতে থাকুন, এই কাজেই তো আমি সেরা, আর আমি এখানে আমার সেরাটা উজাড় করে দিতে এসেছি৷

৩.আমায় কেউ পছন্দ করে না, ভালোবাসে না- এটা কিন্তু ভাবলে আপনার ভাবনাচিন্তা সম্পূর্ণ ভুল পথে চলছে৷ আপনি সকলের প্রিয়পাত্র না-ই হতে পারেন, কিন্তু সবার অপছন্দের তালিকায় আপনার নামটাই শীর্ষে থাকবে, এমনটা ভেবে নেওয়ার কোনও কারণ নেই৷ যখনই আমাদের আত্মবিশ্বাসের ঘাটতি থাকে, তখনই আমরা মনে করি কেউ আমাদের পছন্দ করছে না৷ অথবা আমরা কারও ভালোবাসার পাত্র নই৷ এরকম ভাবনা মাথায় আসামাত্র নিজেই নিজের কাউন্সেলিং করুন৷ ভাবুন আমি আমার মতো, আর সেই আমিটাকেই আমি পছন্দ করি৷ খুব ভালোবাসি৷

৪. আমি কখনও সফল হব না- ভবিষ্যৎ কি কেউ দেখেছে? তাহলে ক্ষণিকের ব্যর্থতায় জীবনে কোনও দিনও সফল হব না, এই ভাবনা ভাবলে মুশকিল৷ সকাল থেকে উঠেই যদি ভাবতে থাকেন, আমার জীবনে কী হল, আমি কোনও কিছুতেই সফল হলাম না, তাহলে সাফল্য আপনার হাতের মুঠোয় এসেও ফসকে যাবে৷ তাই সবার আগে পাল্টান নিজের মানসিকতা৷ সাফল্যের চাহিদা বা সংজ্ঞার কোনও নির্দিষ্ট মাপকাঠি নেই৷ তাই ক্রমাগত নিজের মনে সাফল্য-ব্যর্থতাকে নিয়ে ভাবা বন্ধ করুন৷ শুধু নিজের উপর আস্থা রাখুন যে কাজ আমি করব, তাতেই সফল হব৷ হবই হব৷

৫. আমার কোনও ক্ষমতা নেই- এই ভাবনার পুরোটা জুড়েই রয়েছে ভ্রান্তি৷ কারণ ক্ষমতার না রয়েছে কোনও মাপকাঠি না সীমারেখা৷ কতটা ক্ষমতা কীভাবে পেলে বা প্রয়োগ করতে পারলে আমরা খুশি হব, তা নিজেরাই জানি না৷ তাই যত দ্রুত সম্ভব ক্ষমতার চিন্তাকে মন থেকে ঝেড়ে ফেলুন৷ আর এতেই আগের থেকে আপনার আজকের দিনটা অনেক বেশি সুন্দর হয়ে উঠবে৷