কাবুল: ফের এয়ারস্ট্রাইক আফগানিস্তানে। শনিবার চালানো এই এয়ারস্ট্রাইকে ৩০ জনেরও বেশি তালিবানি বিদ্রোহী নিহত হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

অন্যদিকে তালিবানিরা জানিয়েছে, এই এয়ার স্ট্রাইকের জেরে মহিলা ও শিশুসহ প্রায় দু’ডজন সাধারণ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। উল্লেখ্য, কাতারের দোহায় আফগানিস্তান সরকার ও তালিবান বিদ্রোহীদের মধ্যে শান্তি আলোচনা প্রক্রিয়া অবশ্য চলছে।

আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক একটি টুইটে জানিয়েছে, “আজ সকালে কুন্দুজ প্রদেশের খান আবাদ জেলায় তালিবান ঘাঁটিগুলিতে আক্রমণ হানে আফগান সেনাবাহিনী। এই হামলায় দুই কমান্ডারের মৃত্যু হয় বলেও জানা গিয়েছে।

যদিও তালিবানিরা তাঁদের সঙ্গীদের মৃত্যুর বিষয় অস্বীকার করে জানিয়েছে, এই হামলায় ২৩ জন সাধারণ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। অবশ্য প্রতিরক্ষামন্ত্রক জানিয়েছে, তারা এই দাবি সম্পর্কে সচেতন এবং ঘটনার তদন্ত করা হবে।

স্থানীয় এক হাসপাতালের ডিরেক্টর মহম্মদ নায়িম মঙ্গল সংবাদ সংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন, তিনজন নিহত ও তিনজন আহত সাধারণ মানুষকে তাঁদের হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার দেশটির তিনটি প্রদেশে রাতভর ধরে চলা সংঘর্ষে ৩১ তালেবান সদস্য নিহত হয়। এছাড়া সংঘর্ষে মারা গেছেন নিরাপত্তা বাহিনীর ১৯ সদস্যও। যদি এ নিয়ে কিছু জানায়নি তালিবানেরা।

উল্লেখ্য, এর আগে বৃহস্পতিবারেও আফগানিস্তানের তিনটি প্রদেশে রাতভর ধরে চলা সংঘর্ষে ৩১ তালেবান সদস্য নিহত হয়েছে। পাশাপাশি নিরাপত্তা বাহিনীর ১৯ সদস্যরও মৃত্যু হয়েছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।