তুরিন: অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ থেকে একবছরের লোনে জুভেন্তাসে ফিরলেন স্প্যানিশ স্ট্রাইকার আলভারো মোরাতা। স্পেনের ক্লাবটি থেকে ১০ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে ২৭ বছরের স্ট্রাইকারের দলে নিল তুরিনের কাবটি। শুধু তাই নয় ২০২০-২১ মরশুমের শেষে মোরাতাকে পাকাপাকিভাবে দলে নেওয়ার শর্তও চুক্তিতে খোলা রেখেছে তারা। সেক্ষেত্রে আগামী মরশুমে স্পেনের ক্লাবটি ৪৫ মিলিয়ন ইউরো ফি-বাবদ দেবে ইতালিয়ান জায়ান্ট ক্লাবটি।

আর্জেন্তাইন স্ট্রাইকার গঞ্জালো হিগুয়েন মরশুম শুরুর আগে মেজর লিগ সকার ক্লাব ইন্টার মিয়ামিতে যোগ দিয়েছেন। তাই আপফ্রন্টে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো, পাওলো দিবালার পাশে প্রাথমিকভাবে লুইস সুয়ারেজকে দলে নিতে চেয়েছিল তুরিনের ক্লাবটি। তাদের নজরে ছিলেন রোমার বসনিয়ান স্ট্রাইকার এডিন জেকোও। এডিন জেকোর সঙ্গে কথা অনেকদূর এগোলেও শেষ অবধি সমঝোতায় পৌঁছতে পারেনি দু’পক্ষ। অন্যদিকে আর্থার মেলো, ওয়েস্টন ম্যাকেনির পর আর কোনও নন-ইউরোপিয়ান ফুটবলারকেও দলে নিতে চায়নি সিরি-এ চ্যাম্পিয়নরা।

সবমিলিয়ে জুভেন্তাসে সুয়ারেজের যোগদানের সম্ভাবনা অনিশ্চিত হয়ে যায়। এমন সময় প্রাক্তনী আলভারো মোরাতাকে পুনরায় দলে নিতে ঝাঁপায় তারা। অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ এবং জুভেন্তাস দু’পক্ষের সম্মতিতেই শেষ অবধি মোরাতার জুভেন্তাসে যোগদানের বিষয়টি নিশ্চিত হল। মঙ্গলবারই রোনাল্ডোর ক্লাবে মেডিক্যাল সম্পন্ন হয়েছে স্প্যানিশ স্ট্রাইকারের। আর মোরাতা জুভেন্তাসে যোগ দেওয়ায় সুয়ারেজের অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা আরও প্রবল হল। এমনই রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যমগুলোতে। ইতিমধ্যেই বার্সেলোনার সঙ্গে চুক্তি ছিন্ন করেছেন এই ঊরুগুয়ে স্ট্রাইকার।

এর আগে ২০১৪-১৬ দু’টি মরশুম জুভেন্তাসের জার্সি গায়ে খেলে গিয়েছেন মোরাতা। দুই মরশুমে জোড়া সিরি-এ খেতাব, জোড়া কোপা ইতালিয়া এবং একটি ইতালিয়ান সুপার কাপ জয়ী দলের সদস্য ছিলেন এই স্প্যানিশ স্ট্রাইকার। ২০১৬ ইতালিয়ান কাপের ফাইনালে এসি মিলানের বিরুদ্ধে গোলও ছিল তাঁর। ওই ম্যাচের পরেই রিয়াল মাদ্রিদে যোগদান করেন মোরাতা।

একসময়ের সতীর্থ মোরাতাকে ক্লাবে দ্বিতীয়বারের জন্য স্বাগত জানিয়েছেন জুভেন্তাসের নয়া কোচ আন্দ্রে পিরলো। পাশাপাশি মোরাতার ক্লাবে যোগদানের ঘটনাকে ‘ঘরে ফেরা’ বলে উল্লেখ করেছে জুভেন্তাস।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।