স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : ভরা বর্ষার সময় গরমে ঘামছে গোটা দক্ষিণবঙ্গ। বর্ষার বৃষ্টি একেবারে উধাও হয়ে গিয়েছে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে। মাঝেমধ্যে কালো মেঘ দেখা গেলেও বৃষ্টির দেখা মিলছে না একেবারেই। সরকারি ভাবে তাপপ্রবাহের ঘোষণা করা না হলেও। চড়া রোদের সঙ্গে আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি থাকায় রিয়েল ফিল চল্লিশ ডিগ্রিও ছাপিয়ে গিয়েছিল মহানগরে চরমে ওঠে অস্বস্তি। তবে স্বস্তির খবর মিলছে হাওয়া অফিস সূত্রে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর থেকে জানাচ্ছে, আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, দুই ২৪ পরগনা, দুই মেদিনীপুর, দুই বর্ধমান, বীরভূম ও মুর্শিদাবাদ, নদিয়া, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, ঝাড়গ্রামে বৃষ্টি হতে পারে। তবে দুই ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুরের ভারী বৃষ্টি হতে পারে। হাওয়া অফিস জানিয়েছে, বর্ষা স্বমেজাজেই রয়েছে উত্তরবঙ্গে। মৌসুমি অক্ষরেখা উত্তরবঙ্গের উপর দিয়ে বিস্তৃত হওয়ায় বৃষ্টি হচ্ছে। বহু জায়গাতেই নদীর জল বাড়ছে। উত্তর যেমন ভাসছে তেমনি পুড়ছে দক্ষিণবঙ্গ।

গরমে ঘামছে কলকাতা। বর্ষার বৃষ্টি আবারও উধাও কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে। মাঝেমধ্য়ে কালো মেঘের আনাগোনা দেখা গেলেও বৃষ্টির দেখা মিলছে না সেভাবে। এখনও ঊর্ধ্বমুখী শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। স্বাভাবিকের থেকে বেশ কিছুটা বেশি।

আজ শনিবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৪.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি ছিল শুক্রবার। আর্দ্রতার পরিমান সর্বোচ্চ ৯১ ও সর্বনিম্ন ৬২ শতাংশ। কলকাতায় বৃষ্টি হয়েছে মাত্র ৪.৬ মিলিমিটার। সংলগ্ন দমদমে ও সল্টলেকে বৃষ্টি হয়নি।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ