নয়াদিল্লি: শুক্রবার দেশের বিভিন্ন অংশে বৃষ্টি হয়েছে এতে সামান্য কমেছে গ্রীষ্মের অস্বস্তিকর গরম তবে শুধু এখানেই শেষ নয় আরও সুখবর দিচ্ছে মৌসম ভবন। আগামী ৫ দিন লু বইবে না, এমনটাই জানাচ্ছে হাওয়া অফিস।

শুধু তাই নয়, আগামী সপ্তাহের মধ্যে দক্ষিণ এবং মধ্যভারতে টানা বর্ষার শুরু হবে বলেও জানা গিয়েছে। পঞ্জাব। হরিয়াণা এবং রাজস্থানে ইতিমধ্যেই বৃষ্টি শুরু হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় আমফান-এর তাণ্ডবের স্মৃতি এখনও কাটেনি, ঝড়-বিধ্বস্ত এলাকাগুলিতে ত্রাণের হাহাকারও জারি। স্বাভাবিক পরিস্থিতি ফেরাতে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় কাজ করছে প্রশাসন। এরই মধ্যে আবারও বঙ্গোপসাগরে দানা বাঁধছে নিম্নচাপ।

আগামী সপ্তাহের শুরুতে এই নিম্নচাপ তৈরি হতে পারে। তবে এই নিম্নচাপ ঘূর্ণীঝড়ে রূপান্তরিত হবে কিনা সেটা এখনই বলা সম্ভব নয়। এমনই তথ্য জানিয়েছে মৌসম ভবন।

শুক্রবার, দিল্লির বেশকিছু অঞ্চলে ঝড়-হাওয়া সহ বৃষ্টি হয়েছে। জানা গিয়েছে, পশ্চিমী ঝঞ্ঝা সক্রিয় রয়েছে উত্তর-পশ্চিম ভারতে, সাইক্লোন নিসর্গের জন্য যে আদ্রতা তৈরি হয়েছে তা থেকেই বৃষ্টি হচ্ছে। তাই মনে করা হচ্ছে জুন মাসের ১৫ তারিখ অবধি কোনও লু বইবে না।

বঙ্গোপসাগরের উপর তৈরি হওয়া নিম্নচাপ বর্ষার গতি বাড়াবে বলেই মনে করা হচ্ছে, পাশাপাশি কেরলে জুনের ১ তারিখেই বর্ষা প্রবেশ করেছে। নিম্নচাপ বঙ্গোপসাগরের উপর তৈরি হলেও তা ক্রমশ ওডিশার দিকে সরে যাবে।

নিম্নচাপ মানেই তা ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে তা নয়, আগাম বর্ষায় সাহায্য করবে এবং আগামী সপ্তাহের মধ্যে বর্ষায় গতি বাড়বে। যদিও আগে জানানো হয়েছিল বর্ষা দেরিতে ঢুকবে তবে সাইক্লোন নিসর্গের জন্য তা বেশকিছুটা এগিয়ে এসেছে।

আগামী দু’দিনের মধ্যে পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর, দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগর এবং পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগরের বেশকিছু অংশে বর্ষার জন্য পরিস্থিতি আরও কিছুটা অনুকূল হবে বলেই আশাপ্রকাশ করেছে হাওয়া অফিস। জুনের ১ তারিখ থেকে এখনও অবধি ৯ শতাংশ বৃষ্টি হয়েছে যা স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প