অনলাইন বিভিন্ন শপিং সাইটের সঙ্গে ফোন নম্বর যুক্ত? প্রায়ই মেসেজ পান সেখান থেকে? আসে লোভনীয় সব অফার? তাহলে একটু সাবধান হয়ে যান৷ একটা ভুল ক্লিক সাফ করে দিতে পারে আপনার সাধের ব্যাংক ব্যালেন্স৷ ই ওয়ালেটে এই ধরণের প্রতারণা একাধিক ঘটনা সম্প্রতি নজরে এসেছে৷ এই প্রতারণার হার বাড়ছে৷ তাই অনলাইনে কেনাকাটা করার সময় এবার সাবধান৷ কারণ একটা ভুলে উড়ে যেতে পারে লক্ষাধিক টাকা৷

কীভাবে প্রতারণা চলছে?

যদি অনলাইনে কেনাকাটা করতে চান, তারই সঙ্গে চান নিজের টাকা সুরক্ষিত রাখতে, তাহলে প্রতারণা কীভাবে হচ্ছে, তা জানা দরকার সবার আগে৷ বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন এই ধরণের অপরাধকে পোশাকী ভাষায় ‘e-wallet skimming frauds’ বলা হচ্ছে৷

এখানে সাজিয়ে রাখা হচ্ছে একাধিক ভুয়ো গ্রাহক বা ক্রেতাকে৷ ধরুন আপনি ওএলএক্সে কোনও জিনিস বিক্রির বিজ্ঞাপন দিলেন, সেক্ষেত্রে প্রতারকরা গ্রাহক সেজে আপনাকে ফোন করবে৷ আপনার দেওয়া জিনিসের প্রতি আগ্রহ প্রকাশ করবে৷ ফোনের ওপারে থাকা সেই ভুয়ো গ্রাহক আপনাকে একটি নির্দিষ্ট ই-ওয়ালেট অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করতে বলবে, নয়তো সেই অ্যাপ্লিকেশনের লিংক পাঠাবে৷

আরও পড়ুন : জানেন ভারতে ১০ হাজারেরও কম বেতনে কাজ করেন ৯২শতাংশ কর্মী

তার কথা মত অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করে তাতে নিজের তথ্য নথিভুক্ত করলেই কিউআর কোডের বিস্তারিত বিবরণ দেবে৷ এরপর ভুয়ো গ্রাহকের পাঠানো লিংকে ক্লিক করলেই আপনার সব তথ্য চলে যাবে সেই জাল গ্রাহকের কাছে৷ এরপরই যখন কোনও কিছু আপনি কিনতে যাবেন, সেই তথ্য নিয়ে আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্টে হামলা চালাতে সক্ষম এই সব প্রতারক হ্যাকাররা৷

সাইবার বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, ভুয়ো গ্রাহকের দেওয়া লিংক ক্লিক করে অনেক মানুষই এভাবে সর্বস্বান্ত হয়েছেন৷ তাঁরা টাকা পাওয়ার বদলে টাকা খুইয়েছেন মোটা অংকের৷

সাবধান হবেন কীভাবে?

১৷ কোনও রকমের সন্দেহজনক লিংকে ক্লিক করবেন না৷ এমনকী টাকা উপার্জনের বা কেনাকাটার ক্ষেত্রে কোনও লোভনীয় বার্তাতেও সাড়া দেবেন না৷ এসবের পিছনেই লুকিয়ে থাকে প্রতারণার ফাঁদ৷ এছাড়াও এই ধরণের কোনও অফার নিয়ে ফোন আসলে, তাতে সাড়া দেওয়ার প্রয়োজন নেই৷

২৷ কোনও অনলাইন শপিং সাইটে কিছু কেনাকাটা করতে গেলে নির্দিষ্ট তথ্য দিতে হয়৷ তাতে আপনার ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ডের তথ্যও তুলে ধরতে হয়৷ সেক্ষেত্রে একটি অপশন আসে “remember this card”৷ খেয়াল রাখবেন ভুলেও যেন এই অপশনটিতে ক্লিক না করা হয়৷ প্রতিবার কেনাকাটা করার সময় ওটিপির মাধ্যমে কেনাকাটা করুন, যা অনেক বেশি নিরাপদ৷