ঢাকা: করোনার প্রকোপ থেকে কিছুতেই রেহাই মিলছে না বাংলাদেশ ক্রিকেটের। এবার মারণ কোভিড-১৯’র শিকার হলেন বাংলাদেশ টেস্ট ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মোমিনুল হক। জানা গিয়েছে মোমিনুলের সঙ্গে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন তাঁর স্ত্রীও। দু’জনেই আপাতত কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। মৃদু উপসর্গ নিয়ে মঙ্গলবার মোমিনুলের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর প্রকাশ্য আসে।

উল্লেখ্য, দু’দিন আগেই বাংলাদেশ টি২০ অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ আক্রান্ত হয়েছিলেন করোনা ভাইরাসে। ৪৮ ঘন্টা কাটতে না কাটতেই ফের দুঃসংবাদ বয়ে এল বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের মুখ্য ফিজিশিয়ান ড: দেবাশিষ চৌধুরি একটি নিউজ ওয়েবসাইটকে জানিয়েছেন, ‘মৃদু উপসর্গ নিয়ে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন মোমিনুল।’ করোনা আক্রান্ত হওয়া প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে মোমিনুল নিজে জানিয়েছেন, ‘করোনার বিশেষ উপসর্গ আমার শরীরে নেই। তবে গত পরশু থেকে সামান্য জ্বর রয়েছে শরীরে।’

গত সেপ্টেম্বর থেকে দেশের প্রথমসারির অন্যান্য ক্রিকেটারদের সঙ্গে জাতীয় শিবিরে প্রস্তুতি শুরু করেছিলেন হক। অক্টোবরে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড আয়োজিত প্রেসিডেন্ট কাপে অংশ নিয়েছিলেন তিনি। পাশাপাশি বঙ্গবন্ধু টি২০ কাপের জন্য ড্রাফটে ওঠার কথা ছিল তাঁর। কিন্তু করোনা আক্রান্ত হওয়ায় সে সবকিছু ভেস্তে গেল। এর আগে আবু জায়েদ, সইফ হাসান, মাশরাফি মোর্তাজা, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের মতো বাংলাদেশ ক্রিকেটাররা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত ৬ নভেম্বর করোনা আক্রান্ত হওয়ায় পাকিস্তান সুপার লিগের প্লে-অফে খেলার বিষয়টি অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে মাহমুদুল্লাহর। চলতি সপ্তাহেই পাকিস্তানে উড়ে যাওয়ার কথা ছিল তাঁর। কিন্তু ৬ নভেম্বরের পর ৮ নভেম্বর পুনরায় মাহমুদুল্লাহর কোভিড পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। গত মাসে বাংলাদেশের অনুর্ধ্ব-১৯ জাতীয় শিবিরেও কোচিং স্টাফ সহ কয়েকজন ক্রিকেটারের কোভিড পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

করোনায় এযাবৎ বাংলাদেশে মৃত্যু হয়েছে ৬ হাজারেরও বেশি মানুষের। সরকারিভাবে আক্রান্ত ৪ লক্ষ ২১ হাজারেরও বেশি।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনাকালে বিনোদন দুনিয়ায় কী পরিবর্তন? জানাচ্ছেন, চলচ্চিত্র সমালোচক রত্নোত্তমা সেনগুপ্ত I