কলকাতা: কলকাতায় চলন্ত বাসে তরুণীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠল। শনিবার সকালে পার্কস্ট্রিট-জওহরলাল নেহরু রোডের ক্রসিংয়ে বাসে এক তরুণীর শ্লীলতাহানির ঘটনা ঘটে। বাস থেকে নেমে কাঁদতে শুরু করেন ওই তরুণী। এরই মধ্যে বাস থেকে পালানোর চেষ্টা করে অভিযুক্ত প্রৌঢ়। কর্তব্যরত ট্রাফিক সার্জেন্ট ধাওয়া করে ধরে ফেলেন অভিযুক্তকে। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

নির্যাতিতা ওই তরুণী হাওড়ার বাসিন্দা। শনিবার সকালে পার্ক স্ট্রিটে যাওয়ার জন্য হাওড়া থেকে বাসে ওঠেন তরুণী। বাসের মধ্যেই শুরু থেকেই তাঁকে উত্যক্ত করছিল এক ব্যক্তি। আপত্তি জানালেও হেলদোল ছিল না অভিযুক্তের। এরপর বাসেই পঞ্চাশোর্ধ ওই ব্যক্তি তরুণীর শ্লীলতাহানি করে বলে অভিযোগ। পার্ক স্ট্রিটের কাছে বাস থামতেই বাস থেকে নেমে পড়েন তরুণী। বাস থেকে নেমে অপমানে কাঁদতে শুরু করেন তরুণী।

বিষয়টি নজর এড়ায়নি কর্তব্যরত পুলিশকর্মীদের। কাঁদতে কাঁদতেই তরুণী চিৎকার করতে থাকেন। এরই মধ্যে বাস থেকে নেমে পালানোর চেষ্টা করে অভিযুক্ত ব্যক্তি। কাছেই দাঁড়িয়েছিলেন কর্তব্যরত ট্রাফিক সার্জেন্ট। তরুণীর চিৎকারে অভিযুক্তকে ধাওয়া করতে শুরু করেন ওই পুলিশকর্মী। পালিয়ে যাওয়ার আগেই ওই ট্রাফিক সার্জেন্ট ধরে ফেলেন অভিযুক্ত ব্যক্তিকে।

অভিযুক্তকে ধরে নিয়ে যাওয়া হয় পার্কস্ট্রিট থানায়। ওই তরুণীর অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয় তাকে। পুলিশ জানিয়েছে, শ্লীলতাহানিতে ধৃত জয়চাঁদ মণ্ডল হুগলির বাসিন্দা। মহিলাদের নিরাপত্তায় একাধিক উদ্যোগ নিয়েছে কলকাতা পুলিশ। মহিলাদের জন্য হেল্পলাইন নম্বর চালু করা হয়েছে। কোনও অপ্রীতিকর পরিস্থিতির মুখে পড়লে মহিলাদের ওই নম্বরে ফোন করতেও আবেদন করা হয়েছে পুলিশের তরফে।