স্টাফ রিপোর্টার, বর্ধমান: শ্রীঘরে রয়েছে স্বামী। তার সঙ্গেই দেখা করতে যাচ্ছিলেন স্ত্রী। যাওয়ার পথে বাসের মধ্যেই শ্লীলতাহানির শিকার হতে হল ওই মহিলাকে।

ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমান জেলার মঙ্গলকোট এলাকায়। বাসের সহযাত্রীদের তৎপরতায় অভিযুক্ত যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ধৃত ওই যুবকের নাম রাজেশ শা।

আরও পড়ুন- নীলছবি-ধর্ষণের ভিডিও সরাতে কেন্দ্রের পাশে গুগল, ফেসবুক, হোয়াটস অ্যাপ

অভিযোগকারী মহিলা জানিয়েছেন যে শুক্রবার সকালের দিকে তিনি কৈচড় থেকে বর্ধমানে আসার জন্য বাসে ওঠেন। বর্তমানে তার স্বামী জেলে রয়েছেন। জেলবন্দি স্বামীর সঙ্গে দেখা করতেই তিনি বর্ধমানে আসছিলেন।

যে বাসে তিনি উঠেছিলেন সেই বাসে খুব ভিড় ছিল। আর তাতেই ঘটে বিপত্তি। ভিড়ে ঠাসা বাসে এক যুবক তাঁর শ্লীলতাহানি করে। প্রথমদিকে বিষয়টি খুব একটা গুরুত্ব দেননি ওই মহিলা। কারণ ভিড় বাসে অনিচ্ছা সত্ত্বেও এমন ঘটনা ঘটে যায় অনেক সময়।

আরও পড়ুন- নাবালিকা ছাত্রীকে যৌন হেনস্থার অভিযোগ উঠল গৃহশিক্ষকের বিরুদ্ধে

কিন্তু বিষয়টা তেমন ছিল না। তা অল্প সময় পরেই বুঝতে পারেন ওই মহিলা। কারণ, যুবক ক্রমাগত অসভ্যতা করে যাচ্ছিল। কিছুতেই নিজের জায়গা থেকে নড়ছিল না সে। অথচ দূরত্ব বজায় রেখে দাঁড়ানোর মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। একই জায়গায় দাঁড়িয়ে থেকে ক্রমাগত শ্লীলতাহানি করেই চলছিল।

অবশেষে মুখ খোলেন ওই মহিলা। চিৎকার করে বাসের সহযাত্রীদের কাছে বলতে থাকেন নিজের অসহায় অবস্থা এবং ওই যুবকের অসভ্যতার কথা। তখনই বাসের অন্য যাত্রীরা ধরে ফেলে অভিযুক্ত যুবককে। পরে বাসটি বর্ধমান ষ্টেশন এলাকায় এলে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে ধৃত যুবক তার এই অপরাধের কথা স্বীকার করেছে।