কলকাতা: এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ালিফাইয়িং রাউন্ডে ছ’গোলে হার এখন অতীত৷ স্যানডংয়ের কাছে লজ্জাজনক হার ভুলে সামনের আইলিগের দু’টি অ্যাওয়ে ম্যাচকেই পাখির চোখ করছেন মোহনবাগান ফুটবলাররা৷ বুধবার কুপারেজে খালিদ জামিলের দল মুম্বই এফসির মুখোমুখি হতে চলেছে তাঁরা৷ এবং তারপর শনিবার গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে সুনীল ছেত্রীদের মুখোমুখি হবেন সঞ্জয় সেনের ছেলেরা৷ তবে দু’টি দলকে সমীহ করলেও ডিফেন্সিভ নয় অ্যাটাকিং ফুটবলই খেলতে চান বাগান কোচ৷ 

বাগান সমর্থকদের নয়নের মনি হাইতিয়ান ফুটবলার সনি নর্ডিও জানিয়ে দিলেন সেকথা৷ একান্তই ছ’পয়েন্ট না পেলে চার পয়েন্টের জন্য যে তাঁরা ঝাঁপাবেন তা রবিবার নর্ডির কথাতেই পরিস্কার৷ পাশাপাশি আইলিগের শেষ মন্যাচে ডিএসকে শিবাজিয়ান্সের বিরুদ্ধে জোড়া গোলও তাতাচ্ছে সনিকে৷ অন্যদিকে, বাগান ফরোয়ার্ড লাইনের অন্যতম স্তম্ভ বিশ্বকাপার কর্নেল গ্লেন ভিসা সমস্যায় চিনে খেলতে না যেতে পারায় বিশ্রাম পেয়েছেন৷ ফলে পরের ম্যাচ খেলতে নামার আগে বেশ চনমনে তিনি৷ একই সঙ্গে বলবন্ত সিংও পুরোপুরি চোট মুক্ত হয়ে যাওয়ায় গুরুত্বপূর্ণ দুটি ম্যাচের আগে কিছুটা হলেও চিন্তা কমল চেতলার সঞ্জয়ের৷
 

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।