কল্যাণী: ভারতসেরা হওয়ার পরই কোচ কিবু ভিকুনাকে কাঁধে তুলে নেন মোহনবাগান ফুটবলাররা৷ মঙ্গলবার কল্যাণী স্টেডিয়ামে আইজল এফসি-কে ১-০ হারিয়ে চার ম্যাচ বাকি থাকতেই আইলিগ চ্যাম্পিয়ন হয় সবুজ-মেরুন৷

পাঁচ বছর পর বাগানে ফিরে ফের বসন্ত৷ ২০১৪-১৫ মরশুমে শেষবার আইলিগ জিতেছিল গঙ্গাপাড়ের ক্লাব৷ সেবার বাগানে আইলিগ ট্রফি এসেছিল বাঙালি কোচ সঞ্জয় সেনের হাত ধরে৷ এবার অবশ্য মোহনবাগানকে চ্যাম্পিয়ন করে স্প্যানিশ কোচ কিবু ভিকুনা৷ গত বছরই বাগানের দায়িত্ব নিয়েছিলেন এই স্প্যানিশ কোচ৷ কিন্তু সাফল্য আসেনি৷ তবুও ভিকুনার প্রতি আস্থা রেখেছিলেন বাগান কর্তারা৷ চার ম্যাচ বাকি থাকতেই কর্তাদের আস্থার মর্যাদা দেন ভিকুনা৷

সোমবাার ভূ-স্বর্গে রিয়াল কাশ্মীরকে হারিয়ে বাগানের পথ আরও সহজ করে দিয়েছিল ইস্টবেঙ্গল৷ এদিন কল্যাণীতে আইজলের বিরুদ্ধে প্রথমার্ধে গোল না-পেলেও ম্যাচের অন্তিমলগ্নে বেইতিয়ার পাস থেকে পাপা’র জোরাল শটে এগিয়ে যায় বাগান৷ স্ট্যানলি রোজারিওর দলকে হারিয়ে বাগানে পাল তুলল নৌকো৷ ১৬ ম্যাচে ৩৯ পয়েন্টে নিয়ে অন্যদের ধরা ছোঁয়ার বাইরে চলে যায় মোহনবাগান৷ লিগ চ্যাম্পিয়ন হয়ে ১৫ মার্চ ডার্বি খেলতে নামবে ভিকুনার ছেলেরা৷

এক নজরে দেখে নেওয়া যাক আইলিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর বাগানের সেলিব্রেশনের চিত্র:

আইজলকে হারিয়ে আইলিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর বাগান ফুটবলার উচ্ছ্বাস৷

চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর ক্লাবের পতাকা নিয়ে উল্লাস বাগানে বিদেশি ফুটবলারদের৷
চ্যাম্পিয়ন কোচকে কোলে তুলে নিলেন বাগান কর্তা সৃঞ্জয় বোস৷
চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর স্ত্রী ও ছেলেকে নিয়ে মাঠেই সেলিব্রেশন বাগানের বিদেশি ফুটবলারের৷
আইলিগ খেতাব জেতার পর মাঠেই হোলি খেলছেন বাগান ফুটবলাররা৷

ক্লাবের পতাকা হাতে নিয়ে উল্লাস বাগান ফুটবলারদের৷