কটক: আই-লিগের পর ফেড কাপেও স্বপ্নভঙ্গ ইস্টবেঙ্গলের৷গত ৯ এপ্রিল শিলগুড়িতে মোহনবাগান ২-১ হারিয়েছিল ইস্টবেঙ্গলকে৷আই-লিগে ডার্বি হারের প্রতিশোধ নেওয়ার একটা সুযোগ ছিল ইস্টবেঙ্গলের সামনে৷কিন্তু রবিবাসরীয় বড় ম্যাচে লাল হলুদকে ফের হারাল সবুজ মেরুন৷ড্যারেল ডাফি ও বলবন্তের গোলে মোহনবাগান ২-১ জিতল ইস্টবেঙ্গলের বিরুদ্ধে৷ব্যাক-টু-ব্যাক ডার্বি হারল রঞ্জন চৌধুরির শিষ্যরা৷ফাইনালে মোহনবাগান খেলবে বেঙ্গালুরুর বিরুদ্ধে৷এদিন প্রথম সেমিফাইনালে বেঙ্গালুরু ১-০ হারিয়েছে আইজলকে৷ আই-লিগ চ্যাম্পিয়নদের ধরাশায়ী করেই শেষ তিন মরশুমে দু’বার ফাইনালে উঠল সুনীলরা৷

২০১০-এ বারাবটিতেই ফেড কাপের ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল ইস্ট-মোহন৷সেটাই দু’দলের এই মাঠে শেষ সাক্ষাৎকার৷সেবার ভাসুমের একমাত্র গোলে ইস্টবেঙ্গল ১-০ জিতে সপ্তমবার ফেডকাপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল৷এই ইতিহাসটা লাল-হলুদের ফুটবলারদের তাতিয়ে ছিল ঠিকই৷কিন্তু মাঠে তার প্রতিফলন পাওয়া গেল না৷এদিন বিরতির দশ মিনিট আগেই সঞ্জয় সেনের দলকে এগিয়ে দেন ড্যারেল ডাফি৷সনি নর্ডির ক্রস থেকে বলবন্তের ব্যাক পাসে দুর্দান্ত গোল করেন স্কটিশ স্ট্রাইকার৷ম্যাচ শেষের নির্ধারিত সময়ের ছ’মিনিট আগেই বাগানের জয় নিশ্চিত করে ফেলেন বলবন্ত সিং৷শেহনাজ থেকে কাটসুমি হয়ে দুর্দান্ত গোলটি করেন পঞ্জাব তনয়৷

ইস্টবেঙ্গল: শুভাশিস রায় চৌধুরি, রাহুল ভেকে, গুরবিন্দর সিং, অর্ণব মণ্ডল, নারায়ণ দাস, রাওলিন বর্জেস, মেহতাব হোসেন, মহম্মদ রফিক, ওয়েডসন আনসেলমে, বিকাশ জায়রু ও উইলিস প্লাজা৷

মোহনবাগান: দেবজিৎ মজুমদার, প্রীতম কোটাল, এডুয়ার্ডো ফেরেইরা, অ্যানাস এডাথোডিকা, শুভাশিস বোস, সৌভিক চক্রবর্তী, শেহনাজ সিং, সনি নর্ডে, ড্যারেল ডাফি ও বলবন্ত সিং৷

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।