কলকাতা: আগের ম্যাচে মহামেডানের কাছে হেরে লিগের জযের আশা শেষ হয়ে গিয়েছে মোহনবাগানে৷ তবে মঙ্গলবার সাদার্ন সমিতির বিরুদ্ধে সন্মানের জয় পেল সবুজ-মেরুন৷ ঘরের মাঠে বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে সাদার্নকে ৪-০ হারায় কিবু ভিকুনার দল৷ বাগানের হয়ে জোড়া গোল করেন সুহের ও ব্রিটো। এই জয়ের ফলে ইস্টবেঙ্গলকে টপকে তিন নম্বরে উঠে এল সবুজ-মেরুন৷

ম্যাচের সাত মিনিটেই সবুজ-মেরুন শিবিরকে এগিয়ে দেন ভিপি সুহের। প্রথমার্ধে ব্যবধান আর বাড়াতে না-পারলেও দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ২-০ এগিয়ে যায় বাগান৷ ৬৩ মিনিটে ম্যাচ ও নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন সুহের। ম্যাচের শেষ দিকে জোড়া করেন ব্রিটো৷ ম্যাচের ৭৮ ও অতিরিক্ত সময়ে অর্থাৎ ৯৪ মিনিটে গোল দু’টি করেন তিনি৷ তবে সাদার্নের বিরুদ্ধে বড় ব্যবধানে জিতলেও সালভা চামোরোর পারফরম্যান্স নিয়ে চিন্তায় মোহনবাগান সমর্থকরা।

এদিন অতিরিক্ত বৃষ্টির জন্য মোহনবাগান মাঠেও বল গড়তে সামস্যা দেখা দেয়৷ দ্বিতীয়ার্ধে বেশ কিছুক্ষণ পরে খেলা শুরু করেন রেফারি৷ তবে প্রবল বৃষ্টির মধ্যেও আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলেন বাগান ফুটবলাররা। দ্বিতীয়ার্ধে তিন-তিনটি গোলও করে মোহনবাগান৷ এদিনের জয়ের ফলে ১০ ম্যাচে মোহনবাগানের পয়েন্ট ১৭। পয়েন্ট সমান হলেও গোল পার্থক্যে ইস্টবেঙ্গলকে পিছনে ফেলে তিন নম্বরে উঠে আসে সবুজ-মেরুন৷ ১০ ম্যাচে ১৯ পয়েন্টে শীর্ষে রয়েছে মহামেডান স্পোর্টিং। বাগানের সঙ্গে ১৭ পয়েন্ট রয়েছে পিয়ারলেস ও ইস্টবেঙ্গলের৷ ৯ ম্যাচে ১৭ পয়েন্ট নিয়ে গোল পার্থক্যে এগিয়ে থাকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে পিয়ারলেস৷ আর ৯ ম্যাচে ১৭ পয়েন্ট হলেও গোল পার্থক্যে পিছিয়ে থাকায় চার নম্বরে রয়েছে ইস্টবেঙ্গল৷

খাতায় কলমে লিগ জয়ের ক্ষীণ আশা থাকলেও বাস্তবে তা যে অসম্ভব সেকথা জানেন বাগানের স্প্যানিশ কোচ৷ তাই এদিন দলে বেশ কয়েকটি পরিবর্তনও করেন কিবু ভিকুনা। লিগের শেষ দু’টি ম্যাচকে আই লিগের প্রস্তুতি হিসেবে দেখছেন বাগান কোচ। এই দুই ম্যাচে সব ফুটবলারদের ঘুরিয়ে ফিরিয়ে খেলিয়ে আই লিগের সম্ভাব্য সেরা একাদশ বেছে নিতে চান বাগানের এই স্প্যানিশ কোচ।