কলকাতা: চলতি মাসের ২৪এ শিলিগুড়িতে হাইভোল্টেজ ডার্বি৷ সূচি অনুযায়ী তার আগে পাঁচ দিনের ব্যবধানে দুটি মিনি ডার্বি ম্যাচ মহমেডানের৷ আর এতেই বেঁকে বসেছিলেন মহমেডান কর্তারা৷

অন্য দলগুলির থেকে কম প্রস্তুতিতে ম্যাচ খেলতে বাধ্য করা হচ্ছে তাঁদের, এই অভিযোগেই আইএফএ কে চিঠি দিয়ে সূচি বদলের আর্জি জানায় সাদা কালো ব্রিগেড৷ তাতে অবশ্য চিঁড়ে ভিজল না৷

আরও পড়ুন- বিশ্বকাপ ট্রফি ঘিরে শহরে চাঁদের হাট

আইএফএ কে দেওয়া চিঠিতে সাদা কালো বাহিনীর প্রস্তাব ছিল কিছুটা এরকম৷ ১০ তারিখ মোহন-মহমেডান ম্যাচ সূচি অনুযায়ী হলেও ইস্ট-মহমেডান ম্যাচ যেন সূচি পাল্টে ২৪এর মেগা ডার্বির পরে রাখা হয়৷ আইএফএ অবশ্য সে যুক্তিকে শিলমোহর দেয়নি৷

আরও পড়ুন- ডার্বির আকাশে কালো মেঘ

২৪ সেপ্টম্বর  ইস্ট-মোহন ডার্বি দিয়েই কলকাতা লিগ শেষ হতে চলেছে৷ এরপরই শারদীয়া উৎসব৷ সেক্ষেত্রে মহমেডানের যুক্তি মেনে  ইস্ট-মহমেডান ম্যাচের দিন পরিবর্তন করা হলে লিগ শেষ করা নিয়ে জটিলতায় পড়তে পারে আইএফএ৷ যেখানে অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহের যুব বিশ্বকাপের আসর বসবে শহরে৷  সেই যুক্তিতেই  পুরোনো সূচিতে খেলার জন্য মহমেডানকে অনুরোধ জানান উৎপল গঙ্গোপাধ্যায়। শেষপর্যন্ত তাঁর আরজিতেই লিগের বাকি ম্যাচ নির্দিষ্ট সূচি মেনেই খেলতে রাজি হয় মহমেডান।

আরও পড়ুন- যুবভারতীই ‘হোম গ্রাউন্ড’ মোহন-ইস্টের

এই প্রসঙ্গে দীপেন্দু বিশ্বাস জানান,  ‘লিগ শেষ হওয়া নিয়ে কোন জটিলতায় যেতে চাই না, রাজ্য ফুটবল সংস্থার সিদ্ধান্তকে সম্মান রেখেই পুরোনো সূচিতে খেলতে রাজি হয়েছি। ‘