নয়াদিল্লি: স্লেজিং করলে যোগ্য জবাব পাবে অস্ট্রেলিয়া৷ সিরিজ শুরুর আগে এমনই হুংকার দিয়ে রাখলেন দেশের এক নম্বর পেসার মহম্মদ শামি৷ ১৭ স্টেপেম্বর চেন্নাইয়ের বাইশ গজে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ওয়ান ডে লড়াইয়ে নামতে চলেছে কোহলি অ্যান্ড কোং৷  তার আগে কোহলির দলের অন্যতম সেরা অস্ত্র শামি মনে করছেন ক্রিকেটে স্লেজিং চলতেই পারে৷ তবে সেটা অবশ্যই ক্রিকেটের স্পিরিট মেনে করা উচিৎ৷ মেনে নিচ্ছেন ক্রিকেটারদের মনোসংযোগ নাড়িয়ে দিতেই স্লেজিং করা হয়৷ তবে পাল্টা এটাও জানিয়ে রাখছেন,‘ওয়ান ডে সিরিজে অজিরা স্লেজিংয়ের রাস্তায় হাঁটলে ভারতীয় ক্রিকেটাররা ইটের বদলে পাল্টা পাটকেল দেবে৷’

আরও পড়ুন- মহালয়ার এক দিন পর ইডেনে ইন্দো-অজি যুদ্ধ

বছরের শুরুতে স্লেজিং-এ উতপ্ত হয়েছিল ভারত-অজি টেস্ট সিরিজ৷ ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে স্লেজিং করে নিজেদের বিপদ ডেকে এনেছিল স্মিথ অ্যান্ড কোং৷ এমন কি বেঙ্গালুরু টেস্টে স্মিথের ডিআরএস কান্ডে জল অনেক দূর গড়িয়েছিল৷ সিরিজ শেষে নিজের বক্তব্যে ভারত অধিনায়ক কোহলি আবার বুঝিয়ে দিয়েছিলেন বর্ডার গাভাসকর সিরিজে অজি ক্রিকেটারের আচরণে বিপক্ষ দলের অনেকেই তাঁর বন্ধুর লিস্ট থেকে বাদ পড়বেন৷ সিরিজে মাঝে তৈরি হওয়া সমস্যা মেটাতে শেষ পর্যন্ত দুই অধিনায়ককে শান্ত করে সিরিজে গুড স্পিরিট বজার রাখায় বার্তা দিয়েছিল আইসিসি৷ অতীতের তিক্ততা ভুলে এবার নতুন করে শুরু করার বার্তা দিয়েছেন অজি অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ৷ গুড স্পিরিট মেনেই সিরিজ হবে এমন আশা রেখেছেন  স্মিথ৷

আরও পড়ুন– জিএসটি-র ফলে বাড়ল ইডেনে টিকিটের দাম

পারফরম্যান্সের বিচারে অজিদের থেকে এই মুহূর্তে একধাপ এগিয়ে শুরু করবে ভারতীয় দল৷ টেস্টের পাশাপাশি ওয়ান ডে ক্রিকেটেও স্বপ্নের ফর্মে রয়েছেন কোহলিরা৷ সম্প্রতি শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ওয়ান ডে সিরিজে টানা পাঁচ ম্যাচে জয় পেয়েছে বিরাটের ভারত৷ শুধু তাই নয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধেও ওয়ান ডে সিরিজে জয় পেয়েছে৷ ইংল্যান্ডের মাটিতে হওয়া চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনাল হারলেও গোটা টুর্নামেন্টে ব্যাটিং ও বোলিং দুই বিভাগেই প্রসংশীয় ক্রিকেট উপহার দিয়েছে ভারতীয় দল

আরও পড়ুন- ইডেনে ডালমিয়ার মূর্তি বসানোর প্রস্তাব মমতা’র

দ্বীপরাষ্ট্র সফরে ওয়ান ডে সিরিজে দু’টি সেঞ্চুরি এসেছে ভারত অধিনায়কের ব্যাট থেকে৷ ওয়ান ডে-তে ৩০টি সেঞ্চুরি করে ছুঁয়েছেন প্রাক্তন অজি অধিনায়ক রিকি পন্টিংকে৷ সামনে শুধু ক্রিকেটঈশ্বর সচিন তেন্ডুলকর৷ শুধু কোহলিই নয়, দলের মিডল অর্ডারে ধোনিকে ফের পুরোনো মেজাজে ফিরে পাওয়া গিয়েছে৷ ওপেনিংয়ে ভরসা জোগাচ্ছেন রোহিত-ধাওয়ান৷ বোলিংয়ে ভুবি-বুমরাহরা দুরন্ত ছন্দে রয়েছেন৷ দু’জনেই শেষ ওয়ান ডে সিরিজে কেরিয়ারে প্রথমবার পাঁচ উইকেটের কীর্তিতে নাম তুলে ফেলেছেন৷ পেস বিভাগে বুমরাহদের সঙ্গত দিতে শামি-উমেশদের মতো অভিজ্ঞদের ফেরানো হয়েছে৷

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ