নটিংহ্যাম: ফিটনেসে ঘাটতি। তাই বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে পাক একাদশে দেখা নাও যেতে পারে জুনেইদের পরিবর্তে শেষ মুহূর্তে দলে ঠাঁই পাওয়া মহম্মদ আমেরকে। সূত্রের খবর, ম্যাচ খেলার মত সম্পূর্ণ ফিট অবস্থায় নেই তিনি। কোচ মিকি আর্থারকে ২০১৭ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয়ের নায়ক নিজেই জানিয়েছেন সে কথা। বিশ্বকাপের পরের ম্যাচগুলোতে পুরো ফিট হয়ে মাঠে নামার উদ্দেশ্যেই আমিরের এই সিদ্ধান্ত বলে মনে করা হচ্ছে।

পাকিস্তানের প্রথম সারির এক সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, আমেরের আবেদন মেনে নিয়ে ক্যারিবিয়ানদের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে তাঁকে বিশ্রাম দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে পাকিস্তান থিঙ্ক-ট্যাঙ্ক। ট্রেন্ট ব্রিজে শুক্রবার বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখোমুখি পাকিস্তান। তবে ইংল্যান্ডের মাটিতে পা দেওয়ার পর থেকেই বেশ কিছু সমস্যায় বাঁ-হাতি পেসার আমের। ভাইরাল ইনফেকশনের কারণে বিশ্বকাপের প্রাক্কালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে দ্বিপাক্ষিক সিরিজে অংশগ্রহণ করতে পারেননি এই স্পিডস্টার।

আরও পড়ুন: প্রবল জনসমর্থনের কারণে বিশ্বকাপে অ্যাডভান্টেজ ভারত, জানালেন বিরাট

তাঁর দুরন্ত বোলিংয়ে ভর করেই প্রথম বারের জন্য চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জিতেছিল পাক ক্রিকেট দল৷ পরের দু’বছরে ১৫টি ওয়ান ডে’তে অবশ্য মাত্র ৫ উইকেট তুলতে পেরেছিলেন আমের৷ ফর্ম পড়তেই তাঁকে বিশ্বকাপের দল থেকে ছেঁটে ফেলে পাক ক্রিকেট বোর্ড৷ প্রাক বিশ্বকাপ পর্বে ইংল্যান্ডের মাটিতে ওয়ান ডে সিরিজে বোলিং বিপর্যয় দেখেই ফের আমেরকে দলে ফেরায় ম্যানেজমেন্ট৷

আরও পড়ুন: World Cup 2019: বিশ্বকাপের পর্দা ওঠার দিনে ক্রিকেটে মাতল গুগল

বিশ্বকাপের আগে ইংল্যান্ডের মাটিতে পাঁচ ম্যাচের ওয়ান ডে সিরিজ খেলেছে পাক দল৷ প্রথম ম্যাচ বৃষ্টির কারণে ভেস্তে যায়৷ পরের তিন ম্যাচে ৩৪০ প্লাস রান তুলেও জয়ে তুলে নিতে ব্যর্থ পাক দল৷ বোলিং ব্যর্থতার কারণেই পাঁচ ম্যাচের সিরিজে ০-৪ হার পাকিস্তানের৷ এই হারকে ওয়েক আপ কল মনে করেই বিশ্বকাপের প্রাক-মুহূর্তে দলে বড়সড় পরিবর্তন আনে পাকিস্তান ম্যানেজমেন্ট৷