নয়াদিল্লি: বাংলাদেশের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শতবর্ষ অনুষ্ঠানে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। বিদেশ মন্ত্রকের দেওয়া বার্তা এমনই জানালো হলো। ১৭ মার্চ নরেন্দ্র মোদী ঢাকায় যাবেন।

বাংলাদেশ সরকার ১৭ মার্চ থেকে টানা এক বছর মুজিব বর্ষ পালন করবে। অনুষ্ঠানে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, কংগ্রেস নেত্রী সোনিয়া গান্ধী সহ বিশিষ্টরা আমন্ত্রিত।

বাংলাদেশ সরকারের বার্তা, ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে ভারতের অবদান কে মনে রেখেই প্রতিবেশি দেশের সরকারের প্রধানকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। কোনও অবস্থায় এই সিদ্ধান্তের নড়চড় হবে না।

এদিকে দিল্লির গোষ্ঠী সংঘর্ষের জেরে বাংলাদেশের মুসলিম সংগঠন গুলি প্রকাশ্যে মোদী ও বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ দেখিয়েছে। হেফাজতে ইসলাম সহ কয়েকটি সংগঠনের হুঁশিয়ারি, ভারতে সংখ্যালঘু মুসলিমদের উপর অত্যাচারের কারণে মোদীকে ঘেরাও করা হবে।

বাংলাদেশ সরকারের স্পষ্ট পাল্টা হুঁশিয়ারি, কোনও অবস্থায় মুসলিম সংগঠনগুলির ঘেরাও বরদাস্ত করা হবে না। মোদী সহ বাকিরা রাষ্ট্রীয় অতিথি।

বৃহস্পতিবার বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র রাভিশ কুমার ব্রিফিংয়ে বলেন, মোদির এই সফর সম্পর্কে পরে বিস্তারিত তথ্য জানানো হবে। তবে ঢাকা সফর নিশ্চিত হলেও প্রধানমন্ত্রীর বেলজিয়াম সফর স্থগিত সেটাও জানান কিমি। কারণ, বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে।

গত বছরের অক্টোবরে ভারত সফরে এসেছিলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তখনই তিনি মোদী কে মুজিব বর্ষের অনুষ্ঠানে আসার আমন্ত্রণ জানান।