স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভারত ‘দর্শন’-এর আগে বস্তি উচ্ছেদ শুরু হয়েছে আমেদাবাদে৷ পুরসভার এই পদক্ষেপের জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে তীব্র কটাক্ষ করলেন লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীর চৌধুরী৷ তিনি বললেন, “বস্তি ঢেকে, উচ্ছেদ করে মোদীজি দেশের ‘সোনালী’ চেহারা ট্রাম্প সাহেবকে দেখাতে চাইছেন না, যদি সাহেবের ঈর্ষা হয়! গরিবী ঢাকতে চায়।”

আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি আমেদাবাদে যাবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে ‘নমস্তে ট্রাম্প’ অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন। তাঁর আগেই সাজ সাজ রব আহমেদাবাদে।সর্দার বল্লবভাই প্যাটেল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ইন্দিরা ব্রিজ অবধি রাস্তার পাশের বস্তি ঢাকতে প্রাচীর তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছে আমেদাবাদ পুরসভা।

জানা গিয়েছে, সৌন্দর্যায়নের নামে বিমানবন্দর থেকে গান্ধীনগর পর্যন্ত প্রায় ৫০০ মিটার রাস্তায় পাঁচিল তৈরি করা হচ্ছে। সেটির উচ্চতা ছয় থেকে সাত ফুট লম্বা হবে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই আধিকারিক জানিয়েছেন, ‘‌৬০০ মিটার লম্বা পাঁচিলটি তৈরি করাই হচ্ছে বস্তি এলাকাগুলোকে আড়াল করার জন্য। এরপর সেখানে গাছ লাগানো হবে।’

মার্কিন প্রেসিডেন্টের সফরের জন্য ইতিমধ্যেই উচ্ছেদের নোটিশ ধরানো হয়েছে নবগঠিত মোতেরা স্টেডিয়ামের কাছের বস্তির ৪৫টি পরিবারকে। শুধু তাই নয়, নোটিশটি গত ১১ ফেব্রুয়ারি দেওয়া হয়েছে। তাতে সাতদিনের মধ্যে জমি খালি করতে হবে বলে জানানো হয়েছে।

যদিও সোমবারই নোটিশটি পরিবারগুলির হাতে ধরিয়ে মঙ্গলবার অর্থাৎ একদিনের মধ্যে জায়গা খালি করতে বলা হয়েছে।স্বাভাবিকভাবেই বস্তিবাসীরা ক্ষেপে গিয়েছেন। ওই বস্তিতে ৫০০টি কাঁচা ঘর রয়েছে, যাতে বসবাস করেন প্রায় ২৫০০ মানুষ। পুরসভার উচ্ছেদ নোটিস পেয়ে মাথায় হাত বস্তিবাসীদের। সকলকে নিয়ে এখন কোথায় যাবেন, এই কথা ভেবেই কুলকিনারা পাচ্ছেন না তাঁরা।