নয়াদিল্লি: মোদীর বায়োপিকে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে আগেই। কিন্তু চলছিল ওয়েব সিরিজ। এবার সেখানেও কোপ পড়ল কমিশনের।

ওয়েব সিরিজের অনলাইন স্ট্রিমিং বন্ধ রাখার নির্দেশ দিল নির্বাচন কমিশন। এই ওয়েব সিরিজ নির্বাচনী বিধিভঙ্গ করছে বলে অভিযোগ করেছিল কংগ্রেস-সহ অন্যান্য বিরোধী দল। তারা নির্বাচন কমিশনেরও দ্বারস্থ হয়েছিল। এবার সেই সিরিজের সম্প্রচার বন্ধ করে দেওয়া হল।

ওয়েব সিরিজের যে সব এপিসোড অনলাইনে ছাড়া হয়েছে, তা প্রত্যাহার করার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। লোকসভা ভোটের আগে কোনোভাবেই এই ওয়েব সিরিজ প্রদর্শন করা যাবে না। নির্বাচনে প্রভাব ফেলতে পারে এমন কোনও সিরিজ ইলেকট্রনিক মিডিয়াতে প্রদর্শন করা যাবে না বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

মোদীর বায়োপিকের ট্রেলারও তুলে নেওয়া হয়েছে ইউটিউব থেকে।

নির্বাচন কমিশনের নির্দেশেই ইউটিউব থেকে মুছে ফেলা হয়েছে এই ভিডিও। নির্বাচন কমিশন নির্দেশে জানিয়েছে, ”কোন প্রার্থী পোস্টার অথবা কোন রকমের প্রচার উপাদান ব্যবহার করতে পারবেন না এবং প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় নির্বাচনী বিধি লাঘু হওয়া অঞ্চলে ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার মাধ্যমেও প্রচার করা যাবে না। “

৫ এপ্রিল থেকে ১২ মার্চে ছবির মুক্তির তারিখ স্থানাতরিত হয়েছিল। কিন্তু তাঁর আগেই ১০ এপ্রিলই ছবির মুক্তিতে স্থগিতাদেশ দেয় নির্বাচন কমিশন। ছবি মুক্তিতে স্থগিতাদেশ দেওয়ার পর সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছিলেন ছবির নির্মাতারা। সুপ্রিম কোর্ট নির্বাচন কমিশনকে নির্দেশ দিয়েছে ছবিটি দেখে পুনরায় রিভিউ দিতে।