নয়াদিল্লি : ভয়াবহ দেশের করোনা(Coronavirus) পরিস্থিতি। মারণ ব্যাধির দ্বিতীয় ধাক্কায় রীতিমতো বেসামাল গোটাদেশ(India)। পরিস্থিতি ক্রমশ জটিল হচ্ছে। এই অবস্থায় দেশের বিভিন্ন রাজ্য ও জেলাগুলির করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় কী কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে এবং জেলা প্রশাসন ও ফিল্ড অফিসাররা কীভাবে সমস্ত কাজকর্ম পরিচালনা করছেন সেই সমস্ত বিষয়ে বিস্তারিতভাবে আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

এদিন কর্ণাটক(Karnataka), বিহার(Bihar), আসাম(Assam), চণ্ডীগড়(Chandigarh), তামিলনাড়ু(Tamilnadu), উত্তরাখণ্ড(Uttarakhand) , মধ্য প্রদেশ(Madhyapradesh), গোয়া(Goa), হিমাচল প্রদেশ(Himachal Pradesh) এবং দিল্লির(Delhi) জেলা ম্যাজিস্ট্রেটদের(District Magistrate) সঙ্গে বৈঠক করেছেন মোদী।

মঙ্গলবার ভার্চুয়ালি এই বৈঠকে বিভিন্ন রাজ্যের জেলা প্রশাসনের উচ্চপদস্থ আধিকারিক, কর্মকর্তারা কীভাবে মহামারীর সময়ে কাজকর্ম করছেন, কোন রাজ্যের কোন জেলার করোনা পরিস্থিতি কেমন এই সংক্রান্ত যাবতীয় বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে।  এছাড়াও দেশের এই করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় আরও কী কী পদক্ষেপ গ্রহন করা যায় সেই বিষয়ে প্রয়োজনীয় পরিকল্পনা করা হয়েছে।

সরকারি সূত্রে খবর, আজকের এই বৈঠকে ৯ টি রাজ্যের মোট ৪৬ টি জেলা থেকে ম্যাজিস্ট্রেটরা অংশ নিয়েছিলেন। এছাড়াও আগামী ২০ মে প্রধানমন্ত্রী একই রকম আরও একটি বৈঠক করবেন। যেখানে ১০ টি রাজ্যের ৫৪ টি জেলার শীর্ষ কর্মকর্তারা অংশ নেবেন।

অন্যদিকে, পরপর ২ দিন ৩ লক্ষের নিচেই রইল করোনা (COVID-19) আক্রান্তের সংখ্যা। সোমবারের পর মঙ্গলবারও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা পার করল না ৩ লক্ষের গণ্ডি। শুধু তাই নয়। সুস্থতার সংখ্যা পেরলো ৪ লক্ষ। করোনার এই নিম্নমুখী সংক্রমণের হার আশা জাগাচ্ছে। তবে কি করোনা জয়ের পথে ক্রমশ এগোচ্ছে দেশ?

মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় গোটা দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২ লক্ষ ৬৩ হাজার ৫৩৩ জন। সোমবারের তুলনায় আক্রান্তের সংখ্যা কিছুটা কম। সোমবার ২ লক্ষ ৮১ হাজার ৩৮৬ জন আক্রান্ত হয়েছিলেন। নিঃসন্দেহে এটি কিছুটা স্বস্তিদায়ক। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতের সংখ্যা অবশ্য বেড়েছে। সোমবার যেখানে ৪ হাজার ১০৬ জনের মৃত্যু হয়েছিল সেখানে মঙ্গলবারের হিসেব বলছে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪ হাজার ৩২৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে আশা জাগাচ্ছে দৈনিক সুস্থতার হার। সোমবারের তুলনায় সুস্থতার হার অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে। সুস্থতার হার এদিন দৈনিক সংক্রমণের থেকে বেশি তো অবশ্যই। তাছাড়া এদিন সুস্থতার সংখ্যা পেরিয়েছে ৪ লক্ষের গণ্ডি। সোমবার ৩ লক্ষ ৭৮ হাজার ৭৪১ জন সুস্থ হয়েছিলেন। আর মঙ্গলবারের রিপোর্ট বলছে সুস্থতার সংখ্যা গত ২৪ ঘণ্টায় ৪ লক্ষ ২২ হাজার ৪৩৬ জন।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.