নয়াদিল্লি: বহু বছর ধরে মামলা চলার পর অবশেষে অযোধ্যা মামলায় রায় ঘোষণা করল সুপ্রিম কোর্ট। শনিবার শীর্ষ আদালত এই মামলার রায় ঘোষণা করেছে। সেই রায়কে স্বাগত জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

এদিন রায় ঘোষণার পর, ট্যুইট করেন নরেন্দ্র মোদী। তিনি লিখেছেন, সুপ্রিম কোর্টের রায় কারও হার বা জিত নয়। রাম ভক্তি হোক বা রহিম ভক্তি, আমাদের দেশভক্তি-র উপর জোর দেওয়া প্রয়োজন। সব জায়গায় যাতে শান্তি বজায় থাকে, সেই আর্জি জানিয়েছেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, ‘অযোধ্যা মামলার রায় খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, এএত প্রমাণিত হল যে কোনও বিতর্ক আইনি পথে সমাধান করা সম্ভব। এতে আমাদের বিচার ব্যবস্থার স্বাধীনতা ও স্বচ্ছতা প্রমাণিত হয়েছে। আইনের সামনে যে সবাই সমান, সেটাই আরও একবার সামনে এল।

১৩০ কোটি ভারতবাসীকে শান্তি বজায় রাখার আর্জি জানিয়েছেন তিনি।

এদিন, অযোধ্যা মামলার রায় দিল সুপ্রিম কোর্ট। অযোধ্যার বিতর্কিত জমি পাচ্ছেন হিন্দুরাই, তৈরি হবে রাম মন্দির। অন্যদিকে, বিতর্কিত জমি বাদে অযোধ্যায় ৫ একর জমি দেওয়া হবে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডকে। সেখানে তৈরি হতে পারে মসজিদ।

সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের আইনজীবী জাফারিয়াব জিলানি বলেন, ” আমরা এই রায়ে সন্তুষ্ট নই। এতে অনেক ভুল তথ্য আছে। রিভিউ করা যাবে কিনা, সেটা আমরা আলোচনা কর ব। তারপরই পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।” তবে, এই রায়কে সম্মান জানানোর পাশাপাশি শান্তি বজায় রাখার আর্জি জানিয়েছেন তিনি।

রায় ঘোষণার আগে সব রাজ্যকে সতর্ক করেছে কেন্দ্র। অযোধ্যা-সহ গোটা উত্তরপ্রদেশ মুড়ে ফেলা হয়েছে কড়া নিরাপত্তার চাদরে। নিরাপত্তার প্রবল কড়াকড়ি। অযোধ্যা মামলার রায় ঘোষণার আগে দুর্গের চেহারা নিয়েছে মন্দিরনগরী। সব রাজ্যকে সতর্ক করে ইতিমধ্যেই চিঠি পাঠিয়েছে কেন্দ্র। নজর রাখতে বলা হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। উত্তরপ্রদেশে পৌঁছে গেছে চার হাজার আধাসেনা। শুধুমাত্র অযোধ্যা জেলাতেই মোতায়েন হয়েছে ১২ হাজার পুলিশ।