কলকাতা: দেশজুড়ে থাবা বসিয়েছে মারণ করোনা। ইতিমধ্যেই দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২ লক্ষ ছাড়িয়েছে। সংকটের এই মুহূর্তেও মোদীতেই ভরসা দেশবাসীর। গোটা দেশে প্রায় ৬৬ শতাংশ নাগরিক প্রধানমন্ত্রীর কাজে সন্তুষ্ট। আইএএনএস ও সি ভোটারের সমীক্ষায় এমনই ইঙ্গিত মিলেছে। বাংলাতেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তুলনায় নরেন্দ্র মোদীর কাজেই বেশি সন্তুষ্ট নাগরিকরা। সমীক্ষায় এমনই ধারণা মিলেছে।

দেশজুড়ে বিপজ্জনক পরিস্থিতি তৈরি করেছে নোভেল করোনাভাইরাস। করোনা মোকাবিলায় একটানা লকডাউন চালিয়ে গেলেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসা তো দূর অস্ত উল্টে হু হু করে ছড়াচ্ছে সংক্রমণ। একটানা লকডাউনে ধুঁকছে দেশের অর্থনীতি। এই পরিস্থিতিতেও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জনপ্রিয়তা বিন্দুমাত্র ভাঁটা পড়েনি। আইএএনএস ও সি ভোটারের সমীক্ষায় এমনই ইঙ্গিত মিলেছে।

এমনকী অ-বিজেপি রাজ্যেও মোদী সবচেয়ে জনপ্রিয় রাজনীতিবিদ। এক ঝটকায় মোদী অনেকটাই পিছনে ফেলেছেন রাহুল গান্ধীকে। সোনিয়া গান্ধী, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় থেকে শুরু করে ভূপেশ বাঘেল, অখিলেশ যাদব-সহ অধিকাংশ দুঁদে রাজনীতিবিদদেরও টেক্কা দিয়েছেন মোদী। সমীক্ষায় প্রকাশ, সারা দেশে মোদীর জাতীয় অ্যাপ্রুভাল রেটিং ৬৫.৬৯ শতাংশ।

মোদীতে সবচেয়ে বেশি ভরসা হিমাচল প্রদেশের। সেখানে ৯৫ শতাংশ মানুষ প্রধানমন্ত্রীর কাজে খুশি। এমনকী বিজেপি বিরোধী দুই রাজ্যেও মোদীর জনপ্রিয়তা তুঙ্গে। মোদী ৯০ শতাংশের ওপর রেটিং পেয়েছেন ওই দুই রাজ্যে।

ওড়িশা ও ছত্তিশগড়ে মোদীর এই জনপ্রিয়তা যথেষ্ট ইঙ্গিতবাহী বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। বিজেপি বিরোধী পঞ্জাব ও রাজস্থানেও গড়ে ৬৮ শতাংশেরও বেশি মানুষ নরেন্দ্র মোদীর কাজকর্মে সন্তুষ্ট।

দেশের অন্য রাজ্যগুলির তুলনায় দক্ষিণের রাজ্যগুলিতে খানিকটা হলেও মোদী-ম্যাজিক পিছিয়ে। কেরল ও তামিলনাড়ুতে প্রধানমন্ত্রীর কাজে ৩২ শতাংশ মানুষ আস্থা জ্ঞাপন করেছেন। এমনকী ইউপিএ শাসিত রাজ্যগুলিতেও মুখ্যমন্ত্রীদের চেয়ে মোদীর ওপরই বেশি ভরসা দেখিয়েছেন মানুষ।

আইএএনএস ও সি ভোটারের সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে, পশ্চিমবঙ্গেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চেয়ে নরেন্দ্র মোদীর কাজেই বেশি খুশি মানুষ। বাংলায় মোদীর রেটিং ৬৪.০৬ শতাংশ। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রেটিং ৫২.০৬। সমীক্ষা অনুযায়ী ছত্তিসগড়েও বাজিমাত মোদীর।

প্রধানমন্ত্রীর কাজে খুশি ৯২.৭৩ শতাংশ মানুষ, অন্যদিকে মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেলের কাজে সন্তুষ্ট ৮১.০৬ শতাংশ মানুষ। বিহারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ওপর ভরসা দেখিয়েছেন ৬৪.০৬ শতাংশ মানুষ। উত্তর প্রদেশে মোদীর কাজে খুশি ৬৭.০১ শতাংশ মানুষ।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প