নয়াদিল্লি: আগামী ১৩ ও ১৪ই জুন কিরগিজস্তানে বসতে চলেছে সাংহাই কো-অপরেশান অর্গানাইজেশনের বৈঠক। হাজির থাকবেন প্রধানমন্ত্রী মোদী। উপস্থিত হবেন চিনের প্রসিডেন্ট শি জিংপিংও। সেখানেই দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বসবেন এশিয়ার বড় এই দুই দেশের রাষ্ট্রনেতারা। আলোচনায় উঠে আসতে পারে মার্কিন শুল্ক উত্তাপ প্রসঙ্গ৷

দ্বিতীয়বারের জন্য ভারতের ক্ষমতার ভার প্রদানমন্ত্রী মোদীর হাতে। তাঁকে অভিনন্দন জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। কিন্তু তারপরেই ভারতের বিরুদ্ধে কড়া অবস্থান নেয় ওয়াশিংটন। রফতানি ক্ষেত্রে বিশেষ আগ্রাধিকারের ক্ষেত্রটি বন্ধ করে দেয় আমেরিকা। অস্বস্তি বেড়েছে মোদী সরকারের।

আরও পড়ুন: ইসলাম বিরোধী সংস্কৃতির অভিযোগে তেহরানে বন্ধ করা হল রেস্তোরাঁ

ট্রাম্পের কু-নজরে বেজিং-ও। তাদের কুড়ি হাজার কোটি পণ্যের উপর শুল্ক বাড়িয়ে করা হয়েছে ২৫ শতাংশ। ফলে মার্কিন শুল্ক উত্তাপের রেশ ভারত ও চিনের উপর। সাউথ ব্লকের খবর, দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের পাশাপাশি চলতি সপ্তাহে মোদী জিনপিং বৈঠকে উঠে আসতে পারে আমেরিকার শুল্ক উত্তাপের বিষয়টিও। এই পরিস্থিতিতে চিন ভারত বৈঠক যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

দ্বিতীয় ইনিংসেও বিদেশনীতি জোরদার করতে সবরকমের চেষ্টা জারি রাখছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকটি দেশে ঘুরে এসেছেন তিনি। এবার সাংহাই কো-অপারেশন সামিটে গিয়ে কথা বলবেন একাধিক রাষ্ট্রনেতার সঙ্গে।

চিনা বিদেশমন্ত্রকের মুখপত্রে প্রকাশ, ১২-১৬ই জুন কিরগিজস্তান, তাজাকিস্তানে থাকবেন শি জিংপিং। সেখানেই সাংহাই কো-অপরেশান অর্গানাইজেশনের বৈঠকের ফাঁকে দেকা করতে পানের মোদী জিনপিং। দ্বিপাক্ষিক বিভিন্ন বিষয় আলোচনায় উঠে আসতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: আলিগড়ে দু’বছরের টুইঙ্কল খুনের প্রতিবাদে কলম ধরলেন বাংলার কবি-রা

বেজিং-এ নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত বিক্রম মিসরিও চিন ভারত রাষ্ট্রনেতাদের বৈঠকের প্রসঙ্গের কথা স্বীকার করেছেন। গত বছর চিন সফর করেন মোদী। উহানে মোদী জিংপিং বৈঠক সফলও হয়েছিল। মিশরার কথায় উঠে আসে সে কথা।

ভারত চিন অম্ল মধূর সম্পর্ক। পাকিস্তানকে নিয়েও উভয় দেশের মত পার্থক্য রয়েছে। শুল্ক যুদ্ধে অবশ্য তার আঁচ পড়ার সম্বাবনা ক্ষীণ বলেই মনে করছেন কূটনীতিকরা। নয়াদিল্লির তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, মোদীর সঙ্গে বৈঠক হবে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমি পুতিনের। চিনের প্রেসিডেন্ট জি জিংপিংয়ের বৈঠক হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। তবে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে বৈঠকের কোনও সম্ভাবনা নেই। বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র রবিশ কুমার জানিয়েছেন, ইমরান খানের সঙ্গে মোদীর বৈঠকের কোনও সম্ভাবনা এখনও পর্যন্ত নেই।