নয়াদিল্লি: প্রবীণ নাগরিক Senior Citizen-দের জন্য এবার দারুণ সুযোগ এনে দিতে পারে কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রের মোদী সরকার দেশের প্রবীণ নাগরিকদের জন্যও এবার নয়া পেনশন স্কিম চালুর পরিকল্পনা নিয়েছে। যদিও এব্যাপারে এখনও পাকাপাকিভাবে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা ক্রমেই বাড়ছে। কেন্দ্র এই সিদ্ধান্তটি কার্যকর করলে দেশের প্রবীণ নাগরিকরা দারুণ উপকৃত হবেন। বৃদ্ধ বয়সে পেনশন স্কিম খুলে নিশ্চিন্তে তাঁরা কাটাতে পারবেন অবসর জীবন।

কেন্দ্রীয় সরকার সত্যিই যদি এই পরিকল্পনাটি বাস্তবায়িত করে তবে বড়সড় প্রভাব পড়তে পারে বহু মানুষের অবসরকালীন জীবনে। বয়স্ক নাগরিকদের জন্য বড় পরিকল্পনা কেন্দ্রের মোদী সরকারের। কেন্দ্রের পরিকল্পনা অনুযায়ী ওই স্কিমে, ৭০ বছর বয়সেও পেনশন অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন বৃদ্ধ-বৃদ্ধারা।

নিজেদের নামে, ন্যাশনাল পেনশন স্কিম বা এনপিএসের পক্ষ থেকে দারুণ সুযোগ। এর ফলে বৃদ্ধ বয়সেও টাকার জন্য দুশ্চিন্তা করতে হবে না প্রবীণ নাগরিকদের। ৭০ বছর বয়সেও পেনশন অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন তাঁরা। সেটাও তাঁদের নিজেদের নামেই।

ইতিমধ্যেই পেনশন ফান্ড নিয়ামক সংস্থা কেন্দ্রীয় সরকারকে এই প্রস্তাব পাঠিয়েছে। প্রস্তাব খতিয়ে দেখে কেন্দ্রীয় সরকারের অনুমোদন চেয়েছে পেনশন ফান্ড নিয়ামক সংস্থা। তবে এব্যাপারে এখনও পাকাপাকিভাবে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা চলছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী থেকে শুরু করে কেন্দ্রের বরিষ্ঠ মন্ত্রীরা বিষয়টি নিয়ে আলোচনা চালাচ্ছেন। মোদী ক্যাবিনেট গ্রিন সিগন্যাল দিলেই কার্যকর হয়ে যাবে নয়া স্কিম। যাতে সুবিধা পাবে বহু সিনিয়র সিটিজেন। বর্তমানে ৬৫ বছর পর্যন্ত খোলা যেতে পারে পেনশন অ্যাকাউন্ট। নয়া পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হলে সেই বয়সই বেড়ে হবে ৭০ বছর।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.