ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: প্রথমবার ক্ষমতায় এসে নাগরিকত্ব আইন সংশোধনী বিল পেশ করে বিজেপি৷ আর দ্বিতীয় দফায় সেই দল ক্ষমতায় এলে সব অনুপ্রবেশকারীকে দেশ ছাড়া করা হবে৷ নির্বাচনী প্রচারে এসে এই হুঁশিয়ারি দিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ৷ পাশাপাশি রোহিঙ্গাদের ভারতে অনুপ্রবেশে আটকে দেওয়ার জন্য বিজেপি পরিচালিত এনডিএ সরকারকে পুরো কৃতিত্ব দেন শাহ৷

জম্মু কাশ্মীরে নির্বাচনী প্রচারে যান বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি৷ রাজৌরিতে একেবারে লাইন অফ কন্ট্রোলের কাছে জনসভা করেন তিনি৷ সেখানে দাঁড়িয়ে মোদীর সেনাপতি বলেন, ‘‘বিজেপি সরকার সবথেকে যে বড় কাজ করেছে তা হল রোহিঙ্গাদের ভারতে অনুপ্রবেশ করা থেকে আটকেছে৷ পিডিপি রাজ্যে রোহিঙ্গাদের স্বাগত জানাতে তৈরি ছিল৷’’ জনতার উদ্দেশ্যে প্রশ্ন ছুঁড়ে বলেন, ‘‘আপনারাই বলুন রোহিঙ্গাদের আটকনো উচিত কি উচিত নয়?’’ সভায় উপস্থিত জনতা তারস্বরে বলে ওঠেন, ‘‘হ্যাঁ’’৷ তৃপ্তির হাসি অমিত শাহের মুখে৷

এরপরই অবৈধ অনুপ্রবেশকারীদের হুঁশিয়ারি দিয়ে অমিত শাহ বলেন, ‘‘সরকার একে একে কর সব অবৈধ অনুপ্রবেশকারীকে ধরবে এবং দেশের বাইরে ছু়ঁড়ে ফেলবে৷ পাঁচ বছরের মেয়াদ শেষের আগেই এই কাজ করে ফেলবে বিজেপি সরকার৷’’ আরও একবার অনুপ্রবেশকারীদের ‘ছারপোকা’ বলে উল্লেখ করেন৷ বলেন, এরা ছারপোকার মতো দেশকে কুড়ে কুড়ে খাচ্ছে৷ জম্মুর জনবসতির বৈশিষ্ট নষ্ট করে দিচ্ছে৷ বিজেপি যতক্ষণ ক্ষমতায় থাকবে ততদিন কাশ্মীরের জনবৈচিত্র বদলাতে দেবে না৷ কাশ্মীর সমস্যার জন্য জওহরলাল নেহরু ও কংগ্রেসকেই দায়ী করেন অমিত শাহ৷