নয়াদিল্লি: দেশের অসংরক্ষিত শ্রমিকদের জন্য সুখবর আনলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ ভারপ্রাপ্ত অর্থমন্ত্রী পীযুষ গোয়েল অসংরক্ষিত শ্রমিক-কর্মচারীদের জন্য পেনশন চালু করার কথা ঘোষণা করেছেন৷ প্রকল্লটির নাম প্রধানমন্ত্রী শ্রমযোগী যোজনা৷

গোয়েলের ঘোষণা অনুযায়ী, প্রতি মাসে ৩০০০ টাকা পেনশন পাওয়া যাবে৷ দেশের অসংরক্ষিত শ্রমিক কর্মীরা অবশ্য এমনিতেই এই পেনশন পাবেন না৷ এঅ পেনশন পেতে গেলে মাসে ১০০ টাকা জমা রাখতে হবে৷

যদি শ্রমিক কর্মচারীদের বয়স ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে হয় তবে তার মাসে ৫৫ টাকা রাখলেই হবে৷ তবে ২৯ বছরের ঊর্ধ্বে বয়স হলে ১০০ টাকা জমা রাখতে হবে৷ অসংরক্ষিত শ্রমিক-কর্মচারীরা এই পেনশন পাবেন ৬০ বছর বয়সের পর থেকে৷ ততদিন পর্যন্ত টাকা প্রতিমাসেই টাকা জমা দিয়ে যেতে হবে৷

মোদী সরকারের দাবি – এটিই বিশ্বে সর্ববৃহৎ অসংরক্ষিত কর্মীদের জন্য পেনশন স্কিম৷ তবে আবেদনকারী শ্রমিকদের মাসিক রেজগার মাসে ১৫ হাজার টাকা পর্যন্ত হতে হবে৷

রাজনৈতিক ভাবে বিচার করলে বলা যায়, ভোটের আগে জনমোহিনী বাজেট বানিয়ে দেশের নিন্মমধ্যবিত্ত জনতার কাছে আসতে চেয়েছে মোদী সরকার৷ দেশের বামপন্থীদলগুলি অনেক দিন ধরেই এই পেনশনের দাবি করে এসেছে৷ বামপন্থীরা এই পেনশনের দাবিতে ২দিন ধরে সারা দেশে বনধের ডাকও দিয়েছিল৷

তবে শেষ বেলায় ভোটের আগে শ্রমিক দরদী হতে চেয়ে জনমোহিনী পেনশন স্কিম ইভিএমে কতটা কাজে আসবে তা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে৷