স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: শিয়রে লোকসভা নির্বাচন৷ আর তার আগে মোদী-মমতা তরজা তুঙ্গে৷ রাজ্যে একের পর এক নির্বাচনী সভা করে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসকে আক্রমণ করছেন মোদী-অমিত শাহ জুটি৷ পাল্টা থেমে নেই তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও৷ মোদী-শাহ জুটির করা তীর্যক আক্রমণের কড়া জবাব দিতে পিছপা নয় তৃণমূলও৷ মমতা রীতিমত হুঁশিয়ারি দিয়ে বুঝিয়ে দিচ্ছেন বাংলায় বিজেপির ক্ষমতা ঠিক কতটা৷ আর এতেই জমে উঠেছে লোকসভায় দুই’দলের রঙ্গমঞ্চ৷

আরও পড়ুন: কংগ্রেসকে ভাগ করার বৃথা চেষ্টা করছেন মোদী, তোপ প্রদেশ নেতাদের

শুক্রবার জলপাইগুড়িতে নির্বাচনী সভা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতেই এদিন তিনি রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস সহ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন৷ এদিন এই নির্বাচনী সভা থেকেই মোদী ফালাকাটা-সলসলাবাড়ি জাতীয় সড়কের উদ্বোধন করেন৷ আর এই নিয়েই মমতাকে আক্রমণ করেন তিনি৷ এর জবাবে মমতা জানান, ‘‘উনি যে সড়কের উদ্বোধন করলেন তার ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে সমস্যা ছিল৷ আমি ৫০টি মিটিং করেছি ওখানে গিয়ে৷ আর এখন বড় বড় কথা বলছেন ম্যাডিবাবু৷’’

আরও পড়ুন: হার্দিককে প্রশ্ন: ‘Aaj Karke Aaya Kya?’

পাশাপাশি এদিন কৃষকদের বঞ্চনা করছে রাজ্য বলেও মমতার সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন প্রধানমন্ত্রী৷ নরেন্দ্র মোদীর দাবি, ‘‘কৃষকদের প্রাপ্য পেতে দিচ্ছে না রাজ্য৷ তৃণমূল কৃষকদের পাশ নেই৷’’ পাল্টা এর উত্তরে মমতা জানামন,‘‘ভোটের সময় রাজনীতি করতে ম্যাডিবাবুর আগমন ঘটে৷ ওরা কৃষকদের জন্য কি করছে? আমরা কৃষকদের ৩৫ কেজি চাল দেই৷ বিনে পয়সায় পড়াশোনার সুযোগ করে দিয়েছি, বিনেপয়সার চিকিৎসা দেই৷ আর উনি শুধু বড় বড় কথা বলতে পারে৷’’