কলকাতা: প্রধানমন্ত্রী মোদী আর মুখ্যমন্ত্রী মমতার বিরোধ কিছু নতুন নয়। প্রায় সব ক্ষেত্রেই কেন্দ্রের কড়া বিরোধিতা করেন মমতা। তবে করোনা পরিস্থিতিতে কথা হল দু’জনের।

সূত্রের খবর, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ফোন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। রাজ্যে লকডাউন নিয়ে খোঁজখবর নিলেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রীকে সবরকম সহযোগিতার আশ্বাসও দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। রাজ্যের ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে জানতে পেরে নাকি বেশ সন্তুষ্ট মোদী। গরিবদের জন্য প্রধানমন্ত্রী যে আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন, সেজন্য তাঁকে ধন্যবাদ জানান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মঙ্গলবার দেশজুড়ে লকডাউনের ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। গোটা দেশই এখন স্তব্ধ। প্রতিটি রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে খোঁজখবর নিচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীকে ফোন করেন খোদ নরেন্দ্র মোদী। তাঁর কাছ থেকে রাজ্যে করোনা সংক্রমণ নিয়ে জানতে চান। প্রধানমন্ত্রীকে এবিষয়ে সবটাই জানান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে সবটা শুনে সন্তোষপ্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদও জানান।

ফোনে নমুনা পরীক্ষার জন্য কিটের দাবি করেন মমতা। এর পাশাপাশি নমুনা পরীক্ষার জন্য দিল্লিতে কয়েকটি কেন্দ্রের তালিকা পাঠিয়েছিল নবান্ন। সেগুলি যাতে দ্রুত অনুমোদন দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়, সে জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

এদিকে, লকডাউন সুনিশ্চিত করতে মুখ্যমন্ত্রী চাইলে আধা সামরিক বাহিনী মোতায়েন করতে পারে কেন্দ্র। শুক্রবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ফোনে আশ্বস্ত করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনে কথা হয়েছে প্রধানমনন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ফোন করেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্করও।