ঢাকা:  বাংলাদেশ সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বাংলাদেশে তাঁকে ঘেরাওয়ের হুমকি দেওয়া হয়েছে। সেই হুমকি উপেক্ষা করেই বাংলাদেশ সফরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর। জানা গিয়েছে, তিনদিনের সফরে ঢাকা পৌঁছবেন প্রধানমন্ত্রী। যা ঠিক তাতে আগামী ১৬ মার্চ ঢাকা পৌঁছনোর কথা রয়েছে তাঁর। মূলত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রী মোদীর বাংলাদেশ সফর। নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন পাশের পর এই প্রথম প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ সফর। ফলে এই সফর রাজনৈতিকভাবে যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী মোদীর সফরের আগেই সোমবার বাংলাদেশ যাচ্ছেন বিদেশসচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা। দুদিনের সফরে বাংলাদেশ যাচ্ছেন। মূলত মোদীর সফরসূচি এবং প্রস্তুতি হিসাবেই শ্রিংলার এই সফর। জানা গিয়েছে, এই সফরে বাংলাদেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিদেশমন্ত্রী একে আবদুল মোমেন এবং বিদেশসচিব মাসুদ বিন মোমেনের সঙ্গে বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। অন্যদিকে, বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী একে আবদুল মোমেন জানিয়েছেন, মুজিববর্ষের অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী-সহ বিভিন্ন রাষ্ট্রের নেতা। এরই মধ্যে ১৮ জন অতিথি অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার বিষয়ে তাঁদের সম্মতি জানিয়েছেন।

জানা গিয়েছে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্যে ইতিমধ্যে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও। আমন্ত্রণ পেয়ে বাংলাদেশ যাওয়ার ব্যাপারে ইতিমধ্যে সবুজ সঙ্কেতও মুখ্যমন্ত্রী দিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। ফলে প্রধানমন্ত্রী, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে একান্তে বৈঠকে বসতে পারেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিস্তা সহ একাধিক ইস্যুতে দুই দেশের মধ্যে আলোচনা হতে পারে বলে মনে করছে রাজনৈতিকমহল।

অন্যদিকে, বৃহস্পতিবার হেফাজতে ইসলাম সহ বিভিন্ন মুসলিম সংগঠনের নেতৃত্ব একযোগে জানিয়েছিলেন, ভারতের রাজধানী দিল্লিতে যেভাবে মুসলিমদের উপর হামলা হয়েছে। তার প্রতিবাদে শুক্রবার জুম্মার নমাজের পর বিক্ষোভ সমাবেশ হবে। সেই বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে মুজিব বর্ষের অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আমন্ত্রণ জানানোর সমালোচনা করেন বক্তারা। মোদীকে বাংলাদেশে ঢুকতে দেয়া হবে না বলেও ঘোষণা করা হয়। ঢাকা বিমানবন্দর ঘেরাওয়ের ঘোষণা দেন ইসলামি দলের নেতৃত্ব।

এদিকে মার্চ মাসেই শুরু বাংলাদেশের জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশচবর্ষ অনুষ্ঠান। ১৭ মার্চ থেকে ২০২১ সালের ২৬ মার্চ পর্যন্ত এই বর্ষ উদ্‌যাপন করা হবে। ১৯২০ সালের ১৭ মার্চ জন্ম হয়েছিল শেখ মুজিবুর রহমানের। এই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ সরকার আমন্ত্রণ জানিয়েছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী সহ অন্যান্যদের।