লখনউ: কেন্দ্রে আরও একবার মোদী সরকার গঠনের পক্ষে সওয়াল করছে বিজেপি শিবির। পালটা জবাব দিচ্ছে বিরোধী কংগ্রেস। পাশাপাশি আঞ্চলিক দলগুলিও জোত সরকার গঠনের কথা বলছে। কেন্দ্রে অকংগ্রেসি এবং অবিজেপি সরকার প্রতিষ্ঠার দাবি করছে অনেকেই। আঞ্চলিক দলগুলির সরকার গঠন নিয়ে অনেক নেতারা আবার জোরাল সওয়াল করছেন।

এই অবস্থায় আঞ্চলিক দলগুলিকে কটাক্ষ করলেন বিজেপি শিবিরের প্রধান মুখ তথা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রকাশ্য জনসভায় দাঁড়িয়েই সকল আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলগুলিকে কটাক্ষ করেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার উত্তর প্রদেশের চান্দৌলি জেলায় নির্বাচনী জনসভায় হাজির ছিলেন নরেন্দ্র মোদী। ওই লোকসভা কেন্দ্রে দলীয় প্রার্থীর জন্য প্রচারসভায় দাঁড়িয়ে তিনি বলেন, “অনেক রাজনৈতিক দল লোকসভায় আটটি আসন, ১০টি আসন, ২০-২২ টি আসন কিংবা ৩০-৩৫টি আসন জিততে পারবে। এই নিয়েই ওই সকল রাজনৈতিক দলের নেতারা প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখছে।”

খুব স্বাভাবিকভাবেই ইঙ্গিতটা যে আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলের দিকেই তা খবুই স্পষ্ট। কোনও দলের নাম উল্লেখ না করেও মোদী বলেন, “সবাই প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখছে। কিন্তু সমগ্র দেশ বলছে, ‘আরও একবার মোদী সরকার।'”

কেন্দ্রে আঞ্চলিক দলের সরকার গঠনের কথা গত এক বছর ধরে চলছে জাতীয় রাজনীতির অন্দরমহলে। যার নেপথ্যে ছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। চলতি বছরের জানুয়ারি আসে দেশের প্রায় সকল অবিজেপি দলের নেতাদের নিয়ে ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে মহাসমাবেশ করেছিলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। এরপরে ফেব্রুয়ারি মাসে জাতীয় রাজধানী দিল্লিতেও একই ছবি দেখা গিয়েছিল। দিল্লির যন্তর মন্তরে সকল অবিজেপি দলের নেতাদের সামিল করেছিলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তথা আম আদমি পার্টির নেতা অরভিন্দ কেজরিওয়াল।

বর্তমান এবং প্রাক্তন রাজধানীর বিরোধী মঞ্চে থাকলেও পরে একলা চলের পন্থা অবলম্বন করেছে কংগ্রেস। ওই দুই মঞ্চে না থেকেও আঞ্চলিক দলের সরকার গঠনের দাবি করেছেন এইআইএমআইএম প্রধান আসাদুদ্দিন ওয়াইসি। তবে জনগণের রায় কোন দিকে যাবে তা জানা যাবে আগামী সপ্তাহের এই দিনেই।