নয়াদিল্লি: কাশ্মীরের উত্তাপের মাঝেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে ফোনে কথা বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ৩০ মিনিটের এই কথোপকথনে দ্বিপাক্ষিক এবং আঞ্চলিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে৷

চলতি বছরে জুনের শেষে ওসাকাতে তাদের বৈঠকের কথা তুলে ধরেন৷ ওসাকাতে দ্বিপাক্ষিক আলোচনা নিয়ে অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে আশা প্রকাশ করেছেন তিনি৷ এই বিষয়ে একের পর এক ট্যুইটও করেছেন তিনি৷

সংবাদ সংস্থা এএনআই-এর খবর অনুযায়ী, পাকিস্তান প্রসঙ্গেও ট্রাম্প-মোদীর কথা হয় এবং পাকিস্তানের অ্যান্টি-ইন্ডিয়া কাজকর্মে বিপদ বাড়ছে, এবং ভারত এই ধরণের কাজ বরদাস্ত করবে না বলে মোদী জানান বলে জানা গিয়েছে৷

এদিকে এর আগেই, জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজের অবস্থান স্পষ্ট করেন৷ কাশ্মীর ইস্যু ভারত-পাকিস্তানের নিজেদের মধ্যেই সমাধান করা উচিত বলে মনে করেন তিনি৷ নিউইয়র্কে ইউএনএসসির বৈঠকের কয়েক ঘন্টা আগে ট্রাম্প পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে ফোনে কথা বলেন৷

জানা যায়, হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, জম্মু-কাশ্মীরের পরিস্থিতি নিয়ে ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যেই দ্বিপাক্ষিক কথা হওয়া প্রয়োজন৷ সেই সঙ্গে এই বিষয়ের গুরুত্ব কতটা সেই নিয়েও কথা হয় বলে জানা যায়৷ ডেপুটি প্রেস সেক্রেটারি হোগান গিদলে শুক্রবার দুপুরে এই বিষয়ে জানান৷

জানা যায়, রাষ্ট্র সঙ্ঘে বৈঠকের আগে অন্তত ২০ মিনিট কথা বলেন তাঁরা। এমনটাই জানান পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি। শুক্রবার সাংবাদিক সম্মেলন ডেকে পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি বলেন, ‘আজ প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে ফোনে কথা বলেন। এই অঞ্চলের পরিস্থিতি এবং বিশেষত কাশ্মীরের পরিস্থিতি নিয়ে দুজন মত বিনিময় করেন। ট্রাম্প ও ইমরান খান আফগানিস্তান নিয়েও আলোচনা করেন।’

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV