file pic
file pic

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: উত্তরবঙ্গের তিন জেলায় ঝড় বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। এমনিতেই আজ সকালে উত্তরবঙ্গের পাহাড়ে ঘূর্ণাবর্তের জেরে বরফ পড়েছে। তার উপর বসন্তে ঝেপে বৃষ্টি হচ্ছে উত্তরের প্রত্যেকটি জেলাতেই। আর ঘণ্টা তিনেকের মধ্যে ফের ঝড় বৃষ্টি হবে জলপাইগুড়ি , দার্জিলিং ও কালিম্পঙে। জানাল হাওয়া অফিস।

এদিকে কাল প্রায় দিনভর বৃষ্টির জেরে সকালের পারদ বেশ কিছুটা নীচে রয়েছে কলকাতার। আজও বৃষ্টির সম্ভাবনা ছিল কিন্তু হাওয়া অফিষ আগেই জানিয়েছিল বেশি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে উত্তরবঙ্গের পার্বত্য জেলাগুলিতে। সেই মতই ঝড় বৃষ্টি হচ্ছে সেখানে।

বুধবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৭.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি কম। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা কাল দুপুরে ২৭ থেকে এক ঝটকায় নেমেছে ২২.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। যা স্বাভাবিকের থেকে ৯ ডিগ্রি কম। কিন্তু আর্দ্রতা বেশি থাকায় মোটামুটি একটা ঠান্ডা ভাব ছিল শহর ও শহরতলিতে। না হলে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা এতটা নামলে কাঁপ ধরিয়ে যেত রাতের দিকে। তা হয়নি। সৌজন্য ঘূর্ণাবর্ত। যা আজও অল্প হলেও সক্রিয়।

আজ দার্জিলিং-য়ে ৪৬.৮ মিলিমিটার, জলপাইগুড়িতে ৬২.৩ মিলিমিটার, কালিম্পঙে ৪২.০ মিলিমিটার, শিলিগুড়িতে ৪৫.০ মিলিমিটার, মালদহে ১১.৫ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.