প্রতীকী ছবি

স্টাফ রিপোর্টার, তমলুক: রাতের অন্ধকারকে হাতিয়ার করে সর্বস্ব লুট করে চম্পট দিল দুষ্কৃতীরা৷ ঘটনাটি তমলুক থানা এলাকার পায়রাচালি গ্রামে৷ খোয়া গিয়েছে কয়েক লক্ষ টাকার সোনার গহনা, নগদ কয়েক লক্ষ টাকা সহ বেশ কিছু মূল্যবান সামগ্রী৷

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই গ্রামের যে বাড়িতে চুরি হয়েছে মালিকের নাম বিনয়কৃষ্ণ মণ্ডল৷ পেশায় সরকারি নথিভুক্ত ঠিকাদার৷ তাঁর স্ত্রী গীতা মণ্ডল৷ তিনি পেশায় সরকারি চাকুরিজীবী৷ তাঁদের সঙ্গে ওই একই বাড়িতে মেয়ে ও জামাই থাকেন৷ তাঁরা আগে অন্যত্র থাকতেন৷ পাঁচ বছর আগে ওই বাড়িতে থাকতে শুরু করেন৷

আরও পড়ুন- ২৮ জন শিশুর পড়াশোনার দায়িত্ব নিল পড়ুয়াদের সংগঠন ‘প্রয়াস’

রবিবার ছুটির দিনে বিনয়কৃষ্ণ বাবু পরিবারের সঙ্গে আত্মীয় সহ সাত জনকে নিয়ে মান্দারমনি বেড়াতে যান৷ সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে চোরেরা সামনের দরজা ভেঙে বাড়ির ভিতরে ঢোকে। দুটি ঘরের আলমারি ভেঙে সোনার গহনা সহ টাকা লুট করে পালিয়ে যায়। ঘরের মধ্যে থাকা কিছু মূল্যবান সামগ্রী নিয়েও চম্পট দেয়৷

সোমবার স্থানীয়রা দেখতে পায় তাদের বাড়ির সদর দরজা ভাঙা অবস্থায় রয়েছে৷ সঙ্গে সঙ্গে তাঁরা খবর দেন বিনয়কৃষ্ণ বাবুকে৷ পাশাপাশি তাঁরা খবর দেন তমলুক থানায়৷ কিছুক্ষণের মধ্যে বিনয়কৃষ্ণ বাবু তাঁর পরিবারকে নিয়ে মন্দারমনি থেকে চলে আসেন৷ বাড়ির অবস্থা দেখে কান্নায় ভেঙে পড়েন মণ্ডল পরিবার৷ পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে তদন্ত শুরু করেছে৷

এর আগেও একাধিকবার তমলুক শহর ও শহর লাগোয়া এলাকায় একাধিক বাড়িতে এই ধরণের চুরির ঘটনা ঘটেছে৷ তাই আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাছে তমলুকবাসী৷