মুম্বই: ‘দাদা ভালো নেই’ এমটাই জানালেন মিঠুনের ম্যানেজার বিজয়। বেশ কয়েক বছর ধরে সিনে-পর্দায় দেখা মিলছে না মিঠুনদার। নিন্দুকেরা বলছেন, সারদা কাণ্ডের পর আত্মগোপন করেছেন অভিনেতা। ফ্যানদের সামনে মুখ দেখানোর সাহস তাঁর আর নেই। তবে সম্প্রতি সব জল্পনা কাটিয়ে নায়কের ম্যানেজার জানালেন, ” মিঠুনের পিঠের হাড় ভেঙে গিয়েছে। অবস্থা ভাল নয়! আমেরিকার লস এঞ্জেলেসে তাঁর চিকিত্‍‌সা চলছে। এই যন্ত্রণাটা দাদার জন্য যেন অপেক্ষা করেছিল। ভাবুন তো, তিনি কতগুলো অ্যাকশন ফিল্ম করেছেন। মাসখানেক আগে যন্ত্রণা মারাত্মক বেড়ে যায়। ওঁর পিঠে একটা হেয়ারলাইন ফ্র্যাকচারও হয়েছে। তবে সৌভাগ্যবশত অস্ত্রোপচার করতে হয়নি”।

২০০৯ সালে ‘লাক’ ছবিতে একটি স্টান্ট করতে গিয়ে পিঠে চোট পান মিঠুন। জানা গিয়েছে, হেলিকপ্টার থেকে লাফ দেওয়ার ওই দৃশ্য শ্যুট করার পর থেকেই পিঠের ব্যথায় কাবু ডিস্কো ড্যান্সার স্টার। প্রসঙ্গে এই ছবিতে মিঠুন ছাড়া ছিলেন ইমরান খান ও শ্রুতি হাসান