কলকাতা:  মৃণাল সেনের তিনি প্রাপ্তি। সিনে-পর্দায় ‘মৃগয়া’ করতে এসেই ‘মুক্তি’ হয় তাঁর অভিনয় সত্ত্বার। ‘নদী থেকে সাগর’ যেখানে পা দিয়েছেন ‘কিসমত কি বাজি’ মেরেছেন তিনি। তবে ‘লোহা’ আজ ‘আঙ্গার’। আর সেই আগুনের উষ্ণ ভালবাসায় টলি-বলি গোটা ইন্ডাস্ট্রির আজ তিনি ‘দাদা’। ৬৬-তে পা রাখলেন মিঠুন চক্রবর্তী।

মুক্তির আগে অনলাইনে ‘উড়তা পাঞ্জাব’maha

বলিপর্দায় বন্ড-গার্লের অভিষেক

কলকাতার স্কটিশ চার্চ কলেজের কেমিস্ট্রির ছাত্র গৌরাঙ্গ ওরফে মিঠুনের অভিনয় জগতে অভিষেক মৃণাল সেনের ‘মৃগয়া’ ছবির মাধ্যমে। প্রথম আগমনেই শ্রেষ্ঠ অভিনেতার জাতীয় পুরস্কার পাওয়া মিঠুন বুঝিয়ে দেন তিনি রুপোলী পর্দায় রাজত্ব করতে এসেছেন। তারপর একেএকে ‘সুরক্ষা’, ‘প্যার ঝুকতা নেহি’, ‘ঘর এক মন্দির’, ‘ওয়াতন কে রাখওয়ালে’, ‘দিলওয়ালা’,’অগ্নিপথ’-এর মতো মশালাদার বলিউডের মেনস্ট্রীম ছবিতে নাচে-অ্যাকশনে ভরপুর নায়ক হিসাবেও তিনি যেমন হিট, তেমনই ‘তাহাদের কথা’, ‘তিতলি’ থেকে ‘ওহ মাই গড’- ব্যতিক্রমী ছবিতেও বুদ্ধিদীপ্ত অভিনয়ে বোদ্ধা দর্শকদের মাতিয়ে রেখেছেন মিঠুন। তবে একটা কথা বলতেই হয়। ৬৬ পার করে ডিস্কো ডান্সার’ মিঠুন থেকে আজকের ‘মহাগুরু’ মিঠুনদার আবেদন কিন্তু সমান অটুট।

রিমেক নয়, সলমন-আমির সিক্যুয়াল!

সৃজিতের ছবিতে গান গাইবেন আশা ভোঁসলে

তবে শুধু সফল অভিনেতা নয়। টিভি সঞ্চালক, সমাজসেবক এমনকি রাজনীতিবিদের ভূমিকাও তিনি সফল। আজ তাঁর জন্মদিনে kolkata24x7-এর তরফ থেকে রইল শুভেচ্ছা।