ভদোদরা: দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে ওয়ান-ডে সিরিজে অভিযান শুরুর দিনে অনন্য নজির গড়লেন মিতালি রাজ। বাইশ গজে বিশ বছরেরও বেশি সময় অতিক্রম করলেন জাতীয় মহিলা দলের অধিনায়িকা। দ্বিতীয় ভারতীয় ক্রিকেটার ও বিশ্বের চতুর্থ ক্রিকেটার হিসেবে এই কৃতিত্ব অর্জন করলেন মিতালি।

বুধবার ভদোদরায় দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে মাঠে নামার সঙ্গে সঙ্গে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সর্বোচ্চ পর্যায়ে ২০ বছর ১০৫ দিন পার করলেন ভারতের ওয়ান-ডে দলনায়িকা। ১৯৯৯ জুনে আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে ইংল্যান্ডের মাটিতে আন্তর্জাতিক ওয়ান-ডে ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল মিতালির। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ২০ বছর বা তার বেশি সময় কাটানোর নিরিখে তালিকায় বাকি তিন নাম সচিন তেন্ডুলকর (২২ বছর ৯১ দিন), সনথ জয়সূর্য (২১ বছর ১৮৪ দিন) এবং জাভেদ মিয়াঁদাদ (২০ বছর ২৭২ দিন)।

অর্থাৎ বিশ্বের চতুর্থ এবং প্রথম মহিলা ক্রিকেটার হিসেবে এলিট লিস্টে নিজের নাম নথিভুক্ত করলেন ওয়ান-ডে’তে দেশের মহিলা ক্রিকেট দলনায়িকা। ইতিমধ্যেই ২০৪ ম্যাচ খেলে মহিলা ক্রিকেটার হিসেবে সবচেয়ে বেশি ওয়ান-ডে ম্যাচ খেলার নজির নিজের দখলে নিয়েছেন মিতালি। তালিকায় দ্বিতীয়স্থানে থাকা ইংল্যান্ডের চার্লট এডওয়ার্ড তুলনায় পিছিয়ে রয়েছেন অনেকটাই (১৯১ ম্যাচ)। ১৭৮ ম্যাচ খেলে তৃতীয়স্থানে রয়েছেন ভারতেরই সিনিয়র ফাস্ট বোলার ঝুলন গোস্বামী।

শুধু সর্বাধিক ম্যাচ খেলাই নয়, ৫০ ওভারের ফর্ম্যাটে মহিলা ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকও মিতালি। বুধবার ম্যাচের পর তাঁর ঝুলিতে সর্বমোট ৬,৭৩১ রান। রয়েছে ৭টি শতরানও। পাশাপাশি বর্ণময় কেরিয়ারে ১০টি টেস্ট ও ৮৯টি টি-২০ ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে যোধপুরের বছর ছত্রিশের এই ক্রিকেটারের। উল্লেখ্য, ৫০ ওভারের ক্রিকেটে মনোনিবেশ করতে চলতি বছরের শুরুতে ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফর্ম্যাট থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন মিতালি।

বুধবার ভদোদরায় দলের ৮ উইকেটে জয়ের মধ্যে দিয়ে স্মরণীয় হয়ে রইল মিতালির মাইলস্টোন ম্যাচ। চোটের কারণে স্মৃতি মন্ধনা ছিলেন না এদিনের ম্যাচে। পরিবর্ত হিসেবে অভিষেক ম্যাচে উজ্জ্বল প্রিয়া পুনিয়া। তাঁর অপরাজিত ৭৫ রান ও জেমিমা রডরিগেজের ৫৫ রানে ভর করে ১৬৫ রানের সহজ লক্ষ্যমাত্রা ছুঁতে বিশেষ বেগ পেতে হয়নি উইমেন ইন ব্লু’কে। মাত্র ৪১.২ ওভারে প্রয়োজনীয় রান তুলে নেয় তারা। ১১ রানে অপরাজিত থেকে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন অধিনায়িকা।