ওয়াশিংটন: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাজকর্মে সেখানকার প্রসিদ্ধ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলি রীতিমত অসন্তুষ্ট। আর তার জন্যই এবার ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে সেখানকার প্রথম সারির শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিকে আদালতে যেতে দেখা গেল। কারণ বিদেশ থেকে আসা ছাত্র-ছাত্রীদের‌ ভিসা দেওয়ার ব্যাপারে এই সরকারের সিদ্ধান্ত একেবারেই সমর্থন করছে না প্রতিষ্ঠানগুলি।

বিদেশি শিক্ষার্থীরা আমেরিকায় থেকে অনলাইনে ক্লাস করতে পারবেন না বলে‌ সিদ্ধান্ত নিয়েছে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন। সরকারের এমন সিদ্ধান্ত ঠেকাতে আমেরিকার শীর্ষস্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয় হারভার্ড এবং ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি (এমআইটি) মামলা করেছে।

বুধবার প্রতিষ্ঠান দুটি বোস্টন ফেডারেল আদালতে এই মর্মে মামলা করে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি আদালতে আবেদন করেছে আমেরিকার ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ যাতে এই আইন কার্যকর করতে না পারে তার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য।

তারা যুক্তি দেখিয়েছেন – মার্কিন সরকার প্রশাসনিক প্রক্রিয়া লঙ্ঘন করেছে কারণ সরকারি কর্মকর্তারা এই আইন বাস্তবায়নের যৌক্তিক কারণ দেখাতে ব্যর্থ হয়েছেন। পাশাপাশি জনগণকে এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে দেওয়া হয় নি। তবে হারভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় এবং এমআইটি’র মতো একেবারে প্রথম সারির শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান মামলা দায়ের করলেও সেই প্রসঙ্গে মার্কিন সরকারি কর্মকর্তারা তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য করেন নি।

তবে ইতিমধ্যেই, আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থীরা যাতে আমেরিকার ছেড়ে চলে যায় সে জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে মার্কিন ইমিগ্রেশন ও কাস্টমস কর্তৃপক্ষ, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে নোটিশ দেওয়া হয়েছে। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, চলতি সেশনে অনলাইনে ক্লাস করা শিক্ষার্থীদের জন্য ভিসা ইস্যু করা হবে না।

অন্যদিকে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সঙ্গে সংঘাত ও সদস্য থেকে সরে আসার পথ নেওয়ার মতো বিতর্কের মাঝেই ফের মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের নির্দেশ সেপ্টেম্বর মাসে খুলতে হবে সব বিদ্যালয়। না খুললেই সরকারি অর্থ সাহায্য বন্ধ হবে। এই নির্দেশের পরেই মার্কিন মুলুকে ফের শোরগোল।

কারণ, বিশ্বে এখনও সর্বাধিক করোনা সংক্রমণ হচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। মৃত্যুও সবথেকে বেশি। কোনওভাবেই পরিস্থিতি বাগে আনা যাচ্ছে না। তার মধ্যেই নতুন করে বিদ্যালয় খোলার নির্দেশ সরকারের। আসন্ন সেপ্টেম্বরে পরিস্থিতি কেমন হবে তা নিয়ে এখনও নিশ্চিত নন বিশেষজ্ঞরা।

বিবিসি জানাচ্ছে, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের হুঁশিয়ারি আগামী সেপ্টেম্বর মাসে করোনাভাইরাসের কারণে যে সব বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলতে চাইবে না তাদের অর্থ দেওয়া হবে না। টুইট বার্তায় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছেন, বন্ধ থাকা বিদ্যালয় চালু করা পরিবার ও শিশুদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ