সাজতে কে না ভালোবাসে? কিন্তু আসল সমস্যাটা হয় মেকআপ তোলার সময় এই পদ্ধতি অনেকেই পছন্দ করেন না।

কিন্তু এটা না করলে ত্বকের যে কি বেহাল দশা হতে পারে তা আমাদের অজানা নয়। তবুও পার্টি থেকে এসে বা বাইরে থেকে এসে মেকআপ না তুলে শুয়ে পড়ার অভ্যাস আমাদের অনেকেরই আছে।

কারণ সে সময়ে ক্লান্তিতে যেন শরীর এলিয়ে দিতে চান বিছানায়। কিন্তু এটাই সবথেকে বড় ভুল করেন আপনি।

তাই আজ থেকে এই ভুলগুলি আর নয়। মেকআপ করা যতটা সহজ মেকআপ তোলার ততটা সহজ নয় কিন্তু অসম্ভব নয়।

১. ত্বকে ঘষে ঘষে মেকআপ তোলা (rubbing skin): অনেক সময়ে মেকআপ সহজে উঠতে চায় না। সে সময় আমরা তুলো দিয়ে জোরে জোরে ত্বকের উপর ঘষতে থাকি ক্লিনজার (cleanser)।

এই সমস্যা বেশি হয় ওয়াটারপ্রুফ মেকআপ (waterproof makeup) হলে। এর ফলে ত্বক রুক্ষ হতে পারে এবং বিশেষ করে চোখের নিচের অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।

আরো পোস্ট- চুলের গোড়ায় দুর্গন্ধ! ৫টি উপাদান গরমে সাথী

সেই অংশটি খুবই নরম হয়। এ কারণে ওয়াটারপ্রুফ মেকআপ রিমুভার (waterproof makeup remover)ব্যবহার করুন।

এর মধ্যে যে অ্যালোভেরা জেল থাকে তা সহজেই মেকআপের বেস গলিয়ে দিতে পারে।

২. ক্লিনজিং ওয়াইপস (cleansing wipes): ক্লান্ত দিনের পরে আমরা অনেকেই বাড়ি এসেই টানটান হয়ে শুয়ে পড়ি। সে কারনে সহজে মেকআপ তুলে ফেলার জন্য বেশীর ভাগই আজকাল ব্যবহার করে থাকেন ক্লিনজিং ওয়াইপস (cleansing wipes)।

তবে এর মাধ্যমে সমস্ত মেকআপ তুলে ফেলা সম্ভব নয়। এছাড়াও ত্বকের ময়লা এক দিক থেকে আরেক দিকে ছড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

মুখ ধুয়ে মুখ পরিষ্কার করার পদ্ধতিতে যদি আপনার বিশ্বাস না হয় তাহলে মিসেলার ওয়াটার (micellar water) ব্যবহার করতে পারেন।

৩. ভুল প্রোডাক্ট: মেকআপ করার সময়ে সে মেকআপ আমাদের ত্বকে বসল কিনা তা নিয়ে আমরা যতটা চিন্তা করি মেকআপ তোলার সময় কি প্রোডাক্ট ব্যবহার করছি তা নিয়ে অতোটা চিন্তিত থাকি না।

তখন আমাদের লক্ষ্য একটাই থাকে কোনমতে মেকআপ তুলে ফেলা। কিন্তু আপনার ত্বকের ধরন বুঝে আপনাকে মেকআপ রিমুভার ব্যবহার করতে হবে।

শুষ্ক এবং সেনসিটিভ স্কিনের ক্ষেত্রে শুকনো মেকআপ রিমুভার ব্যবহার করলে ত্বকের জ্বালাভাব (skin irritation) হতে পারে। এর জন্য আপনি এমন কিছু ব্যবহার করবেন যাতে ত্বকের আর্দ্রতা বজায় থাকে এবং সমস্ত মেকআপ উঠে যায় সহজে।

৪. নিজস্ব মেকআপ রিমুভার (DIY makeup remover): আমরা অনেকেই নিজের হাতে তৈরি জিনিস ব্যবহার করতে ভালোবাসি (DIY remover)। এক্ষেত্রে আমরা মেকআপ রিমুভার অনেকেই নিজের বাড়িতে বানিয়ে ফেলি।

তবে সব সময়ে তা যে আপনার ত্বকের পক্ষে ভাল হবে এমনটা নয়। যেখানে আপনার ত্বকে মাঝে মাঝে এরকম সমস্যা দেখা দেয় সেখানে এভাবে না জেনে এবং নিজের ত্বকের চাহিদা না বুঝে যে কোন ধরনের মেকআপ রিমুভার তৈরি করে ফেলাটাই বুদ্ধিমানের কাজ নয়।

এমন কিছু বিশেষ উপাদান দিয়ে মেকআপ রিমুভার তৈরি করা হয় যা হয়ত আপনার ত্বকের জন্য উপযোগী নয়। এতে আপনার ত্বকে ইনফেকশন বা অ্যালার্জি (skin allergy) হতে পারে।

তাই আগে সেই উপাদানগুলি সম্পর্কে জেনে নেবেন এবং সেগুলি আপনার ত্বকের জন্য ঠিক কিনা সেটাও আপনাকে বুঝতে হবে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.