গুয়াহাটি: প্রায় ৪৮ ঘন্টা কেটে গেলেও এখনও কোনও খোঁজ নেই ভারতীয় যুদ্ধবিমান সুখোইয়ের।  চিন সীমান্তের কাছে এই বিমানটি দু’জন পাইলট সহ নিখোঁজ হয়ে গিয়েছিল৷ এবার সুখোইকে খুঁজতে বিশেষ ইলেক্ট্রো অপটিক্যাল প্লেলোড এএলএইচ হেলিকপ্টার নিয়োগ করা হল। আকাশ পথে এই কপ্টারে থাকা অত্যাধুনিক প্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে খোঁজা হচ্ছে সুখোইকে।

ওই এয়ারক্রাফ্টটিকে খুঁজতে বড়সড় সার্চ অপারেশন শুরু করেছে বায়ুসেনা৷ আকাশে পাঠানো হয়েছিল বিশেষ ফ্লাইং টিমও৷ কিন্তু সেই বিশেষ জায়গাটি খুবই সংকটজনক৷ এর পাশাপাশি ওই এলাকার আবহাওয়াও খুবই খারাপ৷ এরফলে বায়ূসেনারা সেই জায়গাটিতে উদ্ধারকার্য চালাতে সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে৷

গত মঙ্গলবার সকালে অসমের তেজপুরে ভারতীয় বায়ুসেনার এই বিমান নিখোঁজ হয়ে যায়। ওই বিমানে দু’জন পাইলট ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। ওই এয়ারক্রাফটকে খুঁজতে বড়সড় সার্চ অপারেশন শুরু করেছে বায়ুসেনা। আকাশে পাঠানো হয়েছে বিশেষ ফ্লাইং টিম। বুধবার সকালে অসমের তেজপুর থেকে বিমানটি ওড়ে। রুটিন ট্রেনিং মিশনের অংশ হিসেবেই উড়ছিল বিমানটি। সকাল ১১ টায় শেষবার খোঁজ পাওয়া যায় ওই এয়ারক্রাফটের। তেজপুর থেকে ৬০ কিলোমিটার দূরে গিয়ে নিখোঁজ হয়ে যায় সুখোই বিমানটি।