স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: হাসপাতালের বাথরুমের জানালা ভেঙে সোমবার রাতে পালিয়েছিল রাজু মণ্ডল নামে এক জেলবন্দি৷ কিন্তু শেষ রক্ষা হল না৷ মঙ্গলবার সকালে বেলঘরিয়া ব্রিজ থেকে তাকে উদ্ধার করা হল৷ রাজুর বিরুদ্ধে নতুন করে ভারতীয় দণ্ডবিধির ২২৪ ধারায় মামলা দায়ের হয়েছে টালা থানায়।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, আরজি কর হাসপাতালের ৬ তলার মেডিসিন ওয়ার্ডে ভরতি ছিল দমদম সেন্ট্রাল জেলের বন্দি রাজু মন্ডল। সোমবার রাত সাড়ে এগারোটা নাগাদ বাথরুমে যায় রাজু। ব্যাস! তারপর থেকেই সে হাওয়া৷ রাতভর তল্লাশি চালিয়েও রাজুর খোঁজ না মেলায় খবর দেওয়া হয় দমকলে। পরে ভোর হতেই বেলঘরিয়া ব্রিজে খোঁজ মেলে তার। পুলিশের ধারণা, জানালা গলেই পালিয়েছিল রাজু।

জানা গিয়েছে, বছর চব্বিশের রাজু অশোকনগর থানা এলাকার পশ্চিম পাড়ার বাসিন্দা। ২০১৮ সালের মে মাসে একটি ধর্ষণের মামলায় তাকে গ্রেফতার করে অশোকনগর থানার পুলিস। আন্ডার ট্রায়ালে এই বন্দিকে কয়েকদিন আগেই আরজিকর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। দু’জন জেল পুলিশ’ও ওর নজরদারিতে সর্বক্ষনের জন্য মোতায়েন ছিল।

এই ঘটনায় সরকারি হাসপাতালে রোগীদের নিরাপত্তা ও নজরদারিতে ঢিলেমির বিষয়টিই ফের প্রকাশ্যে এসেছে। আগেও একাধিক বার সরকারি হাসপাতালে ভর্তি থাকা রোগীরা উধাও হয়ে গিয়েছেন। এমনকি, হাসপাতালের ভিতর থেকে সদ্যোজাতকে কোলে নিয়ে বেরিয়ে যাওয়ার ঘটনাও ঘটেছে। কিন্তু তার পরেও পরিস্থিতি বদলায়নি।
এই ঘটনায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নিজেরা তদন্ত করবে বলে জানিয়েছে৷