স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: পয়লা বৈশাখ আসতে আর বেশি দেরি নেই৷ তার আগে ইছাপুরে এক সোনার দোকানে দুঃসাহসিক চুরির ঘটনা ঘটল৷ শাটারের তালা ভেঙে সোনার দোকানের ভিতরে ঢুকে লক্ষাধিক টাকার গয়না চুরি করে পালাল দুষ্কৃতীরা৷ এই ঘটনার জেরে এলাকার ব্যবসায়ীদের মধ্যে ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে৷ ঘটনার অভিযোগ দায়ের হয়েছে নোয়াপাড়া থানায়৷ পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে৷

আরও পড়ুন: জগৎবল্লভপুরে ব্রিজ ভেঙে বিপত্তি

সোমবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে ইছাপুর স্টোর বাজার গোয়ালাপাড়া অঞ্চলে৷ স্থানীয় বাসিন্দারাই প্রথম চুরির ঘটনাটি খেয়াল করেন৷ মঙ্গলবার সকালে তারা দেখেন এলাকার ওই সোনার দোকানে শাটার অর্ধেক খোলা৷ তালাগুলি ভাঙা অবস্থায় পড়ে আছে৷ এতেই সন্দেহ হয় এলাকাবাসীর৷ ওই দোকানটি যে বাড়ির নিচে সেই বাড়ির মালিক খবর দেন দোকানের মালিক৷

খবর পেয়ে ছুটে আসেন সোনার দোকানের মালিক অভিজিৎ মুখোপাধ্যায়৷ তিনি এসে দেখেন দোকানের সিসিটিভি ক্যামেরা ভাঙা৷ দোকানের ভেতর থেকে গায়েব সোনার গয়না৷ অন্তত ১২ লক্ষ টাকার সোনার গয়না নিয়ে চম্পট দিয়েছে দুষ্কৃতীদল৷ এরপরই নোয়াপাড়া থানায় এই ঘটনার অভিযোগ দায়ের করেন তিনি৷ পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে৷ দোকানের মালিক অভিজিৎ মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, চুরি যাওয়া বেশিরভাগ গয়নাই অর্ডারের ছিল৷ সব নিয়ে পালিয়েছে চোরেরা৷

আরও পড়ুন: জেলগুলি তার ক্ষমতার থেকেও ১৪ শতাংশ বেশি কয়েদি রাখছে

এই ঘটনার পর আরও একবার এলাকার দুষ্কৃতীদের দৌরাত্ম নিয়ে সরব হয়েছেন বাসিন্দারা৷ অভিযোগ, রাতে বাড়লেই দুষ্কৃতী ও সমাজবিরোধীদের আনাগোনা বাড়তে থাকে৷ পুলিশ প্রশাসনের কোনও ব্যবস্থাই নজরে পড়ে না৷ চুরির খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান উত্তর বারাকপুর পুরসভার পুরপ্রধান মলয় ঘোষ৷ তিনি আশ্বস্ত করে বলেন, দুষ্কৃতীদের বাড়বাড়ন্ত বন্ধ করতে পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে কথা বলব৷