গোল্ড কোস্ট: কমনওয়েলথ ওয়েটলিফটিং চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম দিনেই ভারতকে সোনা এনে দিলেন মীরাবাঈ চানু৷ মঙ্গলবার টুর্নামেন্টের প্রথম দিনেই ভারতের ঝুলিতে ১৩টি পদক৷

গত কমনওয়েলথ গেমেসের মঞ্চেই বসেছে কমনওয়েলথ লিফটিং চ্যাম্পিয়নশিপের আসর৷ সিনিয়র, জুনিয়র ও ইয়ুথ ক্যাটাগরিতে মিলিয়ে প্রথম দিনেই আটটি সোনা-সহ পদক জেতে ভারত৷ আটটি সোনা ছাড়াও তিনটি রুপো এবং দু’টি রুপো জেতেন ভারতীয় প্রতিযোগীরা৷ প্রাক্তন বিশ্বচ্যাম্পিয়ন মীরাবাঈ মোট ১৯১ কেজি (৮৪ কেজি ও ১০৭ কেজি) বিভাগে ভারতকে সোনা এনে দেন৷ সিনিয়র মহিলাদের ৪৯ কেজি বিভাগে অলিম্পিক কোয়ালিফায়িং ইভেন্টে সোনা জিতলেন মীরাবাঈ৷ এই পয়েন্ট ২০২০ টোকিও অলিম্পিকে যোগ্যতাঅর্জনে যোগ হবে৷

মীরাবাঈ শেষবার অংশ নিয়েছিলেন এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে৷ এপ্রিল মাসে চিনের নিংগবোতে এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে ১৯৯ কেজি (৮৬ কেজি ও ১১৩ কেজি) ভার তুললেও অল্পের জন্য পদক হাতছাড়া করে ভারতীয় এই ওয়েটলিফটার৷ ফলে এই গোল্ড কোস্টের এই টুর্নামেন্ট অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ মীরাবাঈয়ের কাছে৷ কারণ ১৮ মাসের ব্যবধানে ৬টি ইভেন্টে পয়েন্টের ভিত্তিতে টোকিও অলিম্পিকের যোগ্যতাঅর্জন করেবেন ওয়েটলিফটাররা৷

গোল্ড কোস্টে এদিন ১৫৪ কেজি (৭০ কেজি ও ৯৪ কেজি) ক্যাটাগরিতে পোডিয়ামে সবার উপরে দাঁড়ান ভারতের ঝিলি দালাবেহেরা৷ অর্থাৎ সিনিয়র মহিলা ৪৫ কেজি বিভাগে দেশকে সোনা এনে দেন তিনি৷ এছাড়াও মহিলাদের ৫৫ কেজি ক্যাটাগরিতে সোনা ও রুপো জেতে ভারত৷ দেশকে সোনা এনে দেন বিন্দিয়ারানি এবং রুপো জেনে মাতসা সন্তোষী৷ ৫৪ কেজিতে সোনা ছাড়াও ৭৮ কেজি ক্যাটাগরিতে রুপো জেতেন বিন্দিয়ারানি৷ এর ফলে মোট ১০৫ কেজিতে সোনা জেতেন তিনি৷ আর পুরুষদের সিনিয়র ৫৫ কেজি বিভাগে মোট ১৩৫ কেজিতে(১০৫ কেজি ও ১৩০ কেজি) ভারতকে সোনা এনে দেন হৃষীকান্ত সিং৷

পপ্রশ্ন অনেক: একাদশ পর্ব

লকডাউনে গৃহবন্দি শিশুরা। অভিভাবকদের জন্য টিপস দিচ্ছেন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ।