রিওয়ারি (হরিয়ানা): একাধিক প্রশিক্ষণ শিবিরে আড়াই বছর ধরে লাগাতার ধর্ষণ করেছেন কোচ৷ এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ এনে পুলিশের দ্বারস্থ হলেন হরিয়ানার রিওয়ারি গ্রামের নাবালিকা ভলিবল খেলোয়াড়৷

অভিযুক্ত কোচকে এখনও গ্রেফতার করা না হলেও পকসো আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে তাঁর নামে৷ শ্রীঘ্রই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে আদালতে পেশ করা হবে বলে জানানো হয়েছে পুলিশের তরফে৷

আরও পড়ুন: ধর্ষণে যুক্ত থাকার অভিযোগে নির্বাসিত শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটার

পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগে নাবালিকা ভলিবল খেলোয়াড় জানিয়েছেন, গত আড়াই বছর ধরে গুরগাঁও, রোহতক ও অন্যান্য জায়গায় তাঁকে ক্রমাগত ধর্ষণ করেছেন গৌরব দেশওয়াল নামে ওই কোচ৷ এই নিয়ে কারও কাছে মুখ খুললে তাঁকে খুনের হুমকি দেওয়ার পরেই নাবালিকা তিনি পুলিশে অভিযোগ জানানোর সিদ্ধান্ত নেন৷

আরও পড়ুন: এশিয়ান গেমসে সোনা জিততে চান রুপিন্দর

হরিয়ানা পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্তকে এখনও গ্রেফতার করা হয়নি৷ তবে তদন্ত শুরু হয়েছে৷ পকসো আইনে মামলাও রুজু করা হয়েছে৷ যত শ্রীঘ্র সম্ভব অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে আদালতে তোলা হবে৷

গত বছর নরেশ দাহিয়া নামক এক কুস্তিগীড় শাহবাদ ডেয়ারি এলাকা থেকে দিল্লি পুলিশ গ্রেফতার করে, যাণর বিরুদ্ধে জাতীয় স্তরের এক জুনিয়র কবাডি খেলোয়াড় যৌন হেনস্থার অভিযোগ এনেছিলেন৷

আরও পড়ুন: বর্ণবিদ্বেষ বিতর্কে ওজিলের পাশে সানিয়া

২০১৬’য় জাতীয় স্তরের এক শুটার তাঁর কোচের বিরুদ্ধে নরম পানীয়য় মাদক মিশিয়ে তাঁকে ধর্ষণের অভিযোগ করেন৷ সংশ্লিষ্ট কোচ নিজেও একজন অলিম্পিয়ান শুটার৷