প্রতীকী ছবি

ভোপাল: ধর্ষণে বাধা দিয়েছিল ১৩ বছরের দলিত মেয়েটি। সেই কারণে তাঁকে জ্যান্ত পুড়িয়ে মারার চেষ্টা করল অভিযুক্ত।

চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের সুসতানি গ্রামে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার রাতের দিকে ঘটনাটি ঘটে। ওই সময় বাড়িতে একাই ছিল দলিত মেয়েটি। সেই সুযোগে বাড়িতে ঢুকে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করার চেষ্টা করে অভিযুক্ত যুবক।

আত্মরক্ষার্থে ওই যুবককে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করে আক্রান্ত কিশোরী। সেই সময় আক্রান্তকে প্রাণে মেরে ফেলার চেষ্টা করে অভিযুক্ত যুবক। ওই কিশোরীর বাড়িতে থাকা কেরোসিন মেয়েটির গায়ে ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয় অভিযুক্ত এবং ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়।

শনিবার রাতে আক্রান্ত কিশোরীকে স্থানীয় জেলা হাসপাতালে ভরতি করা হয়। তার শরীরের শতকরা ৫০ ভাগ পুড়ে গিয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা। প্রাথমিক চিকিৎসার পরে তাকে ওই রাজ্যের রাজধানী শহর ভোপালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

রাজগড় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পুলিশের তিনজনের একটি দল অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় এসডিওপি শম্ভু সিং আহরিওয়াল।