ছবি- ফেসবুক পেজ থেকে প্রাপ্ত

কলকাতা: তিনি শুধু জনপ্রিয় অভিনেত্রীই নন। টলিউডে চুটিয়ে কাজ করছেন মিমি চক্রবর্তী। কিন্তু মাঝপথেই বাধ সাধল রাজনীতি। ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ হাতছাড়া হল মিমির।

‘টাইমস অফ ইন্ডিয়া’র রিপোর্ট অনুযায়ী, পরিচালক বিরসা দাশগুপ্তার ছবি ‘বিবাহ অভিযান’-এ মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করার কথা ছিল মিমির। কিন্তু প্রার্থী তালিকায় নাম উঠতে আপাতত বাদ যেতে হল তাঁকে। মার্চের শেষেই শ্যুটিং শুরু হওয়ার কথা ছিল এই ছবির।

ছবিতে অভিনেতা অঙ্কুশের বিপরীতে অভিনয় করার কথা ছিল তাঁর। কিন্তু আপাতত লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের প্রার্থী তিনি। তাও আবার যাদবপুরের মত গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রে। তাই দু’দিক একসঙ্গে সামাল দেওয়া একেবারেই অসম্ভব। তাই এই ছবি ছেড়ে দেওয়ার কথা জানিয়েছেন মিমি। তিনি জানিয়েছেন, আপাতত তাঁকে যে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, সেটাই পালন করবেন তিনি। একইসঙ্গে ‘বিবাহ অভিযান’ ছবির টিমের সাফল্য কামনাও করেছেন তিনি।

ছবিতে অঙ্কুশ ছাড়াও রয়েছেন রুদ্রনীল ঘোষ, সোহিনী সরকার, অনির্বাণ ভট্টাচার্য ও প্রিয়াঙ্কা সরকার। তবে অঙ্কুশের বিপরীতে মিমির পরিবর্তে কাকে নেওয়া হবে, তা এখনও জানা যায়নি। মার্চের শেষে শ্যুটিং শুরু হবে। তার আগেই বাছাই করা হবে অভিনেত্রী।

SVF প্রযোজিত ওই ছবিতে অভিনয়ের পাশাপাশি স্ক্রিপ্ট এবং ডায়লগও লিখেছেন রুদ্রনীল। দুই পুরুষ চরিত্রকে নিয়ে ছবি। যাদের মধ্যে একজন সবসময় স্ত্রী’র থেকে দূরে পালাতে চায় ও অপরজন স্ত্রী’কে জীবনে ফিরে পাওয়ার জন্য পাগল।

চলতি সপ্তাহের শুরুতেই প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছে তৃণমূল। সেই তালিকায় মিমি ছাড়াও সেলেব প্রার্থী হিসেবে নাম রয়েছে নুসরতেরও।