কলকাতা- সোমবার থেকে রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে রাজধানী। সিএএ সমর্থক ও সিএএ বিরোধীদের সংঘর্ষ ঘিরে ভয়াবহ পরিস্থিতি দিল্লির। বিজেপি নেতা কপিল মিশ্রর বিরুদ্ধে উঠেছে হিংসায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ। ইতিমধ্যেই মৃত্যু হয়েছে ২৪ জনের। আহতের সংখ্যা প্রায় ২০০-র কাছাকাছি। দেশ জুড়ে চলা হিংসাকে ঘিরে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন যাদবপুরের তৃণমূল সাংসদ তথা অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী।

মিমি একটি টুইট করেন, “আজ ভালো হয়েছে কবি গুরু তুমি বেঁচে নেই …আজ ভালো হয়েছে কবি নজরুল ইসলাম তুমি বেঁচে নেই। কারণ মোরা একই বৃন্তে দুটি কুসুম হিন্দু মুসলমান আর নই, মোরা রাম আর রহিম ভাই ভাই আর নই। যেটা আমরা এখন… সেটা আর যাই হোক মানুষ আর নই …”

এই একই পরিস্থিতি নিয়ে সকালে টুইটারে প্রতিক্রিয়া দিয়েছিলেন বসিরহাটের তৃণমূল সাংসদ তথা অভিনেত্রী নুসরত জাহান। তাঁর পোস্ট করা ছবিতে লেখা, MUSLIM ও HINDU দুটো শব্দ। শব্দ দুটিতে নেই I আর U। অর্থাৎ দুটি শব্দ থেকেই এই দুটি অক্ষর সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।তলায় লেখা I আর U ছাড়া সবটাই অসম্পূর্ণ। ছবির সঙ্গে নুসরত লিখেছেন, ‘আমার দেশ জ্বলছে আর তাতে আমি কষ্ট পাচ্ছি। ভুলে গেলে চলবে না যে সবার আগে আমরা মানুষ।’ একই সঙ্গে গুজব কিংবা ভুয়ো খবর যাতে না ছড়ায় সেই বার্তাও দিয়েছেন তিনি।

দিল্লির অবস্থার অবনতি দেখে অবশেষে নীরবতা ভাঙেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। টুইট করে বলেন, শান্তি ও সম্প্রীতি বজায় রাখাই আমাদের মূল লক্ষ্য। আমি দিল্লির ভাইবোনেদের শান্তি ও ভ্রাতৃত্ববোঝ বজায় রাখার আবেদন করছি। শীঘ্রই শান্তি ও স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসা খুব জরুরি।