মুম্বই- শৈশবে নাকি রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের (আরএসএস) সঙ্গে যুক্ত ছিলেন মিলিন্দ সোমন। নিজের আত্মজীবনীতে এই কথাই উল্লেখ করেছেন ৫৪ বছরের মডেল-অভিনেতা।

মিলিন্দ তাঁর আত্মজীবনীতে বলছেন, মুম্বইয়ের শিবাজী পার্কে আরএসএস-এর স্থানীয় শাখায় প্রায়ই যেতেন তিনি। আত্মজীবনী থেকেই জানা যাচ্ছে, একজন বালক হিসেবে নিয়মানুবর্তী হওয়া খুবই জরুরি। এর জন্য এতে মানসিক ও শারীরিক স্থিতিশীলতা তৈরি হয়। আর তাই মিলিন্দের বাবা মনে করতেন যে আরএসএস জুনিয়রের সঙ্গে যুক্ত হলে ছেলে আরও ভালো হবে।

মিলিন্দ লিখেছেন, আরএসএস-এর হিন্দুত্ববাদী নীতি ও সাম্প্রদায়িক প্রোপাগান্ডা পড়ে রীতিমতো তিনি হতবুদ্ধি হয়ে পড়তেন। সঙ্গে তিনি জানাচ্ছেন, তাঁর বাবাও একজন কট্টর আরএসএস ছিলেন এবং হিন্দু হওয়ার জন্য খুব গর্ব করতেন তিনি। তাই মিলিন্দ বলছেন, হিন্দু হওয়ার মধ্যে গর্বের কী আছে তিনি বুঝতেন না।

সম্প্রতি একটি টুইট করেছেন মিলিন্দ সোমন, যেটি এই মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ডিং। এই প্রসঙ্গেই টুইট করে মিলিন্দ লিখেছেন, ৫৪ বছরে ট্রেন্ডিং হওয়ার এই অভিজ্ঞতা আমার ১০ বছর বয়সেও হয়েছিল। যদি সেই অভিজ্ঞতা সাঁতার নিয়ে হতো!

প্রসঙ্গত, বয়স যে একটা সংখ্যা মাত্র তা বার বার প্রমাণ করেছেন মিলিন্দ সোমন। এখনও তিনি মডেল হিসেবে আগের মতোই ভক্তদের মুগ্ধ করেন। ২০১৮ সালে বছরের ছোট তরুণী অঙ্কিতা কোনওয়ারকে বিয়ে করেন মিলিন্দ। বয়সের ফারাক থাকলেও তাঁদের রসায়নে মুগ্ধ দর্শকরা।